রাজধানী

কলাবাগানে মা দিবসে মাকে হত্যাচেষ্টাকারী বখাটে ছেলে মিল্লাত ৫ দিনের রিমান্ডে

  • 7
    Shares

এস,এম,মনির হোসেন জীবন: রাজধানীর কলাবাগান থানার পান্থপথ এলাকায় মা দিবসে মাকে হত্যাচেষ্টাকারী বখাটে ছেলে মিল্লাত হোসেন (২৫)কে পৃথক দুই মামলায় পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার দুপুরে শুনানি শেষে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ দিদার হোসাইন এ আদেশ দেন।
ডিএমপি কলাবাগান থানায় অস্ত্র আইনের মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের (উপ-পরিদর্শক) নজরুল ইসলাম ৫ দিন এবং হত্যাচেষ্টা মামলায় একই থানার পুলিশের (উপ-পরিদর্শক) বিল্লাল হোসেন ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করে মিল্লাত হোসাইনকে আদালতে হাজির করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক হত্যাচেষ্টা মামলায় দুই দিন এবং অস্ত্র আইনে মামলায় তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এসময় আসামি মিল্লাত হোসেনের পক্ষে কোনও আইনজীবী ছিল না।

এদিকে, সোমবার ভোরে রাজধানীর পান্থপথ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করেন এলিট ফোর্স র‌্যাব-২ এর একটি দল। গ্রেফতারের সময় তার কাছ থেকে একটি ওয়ানশুটার গান ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।জিঞ্জাসাবাদ শেষে তাকে কলাবাগান থানা পুলিশের নিকট সোপর্দ করা হয়।

র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব -২) এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর এইচ এম পারভেজ আরেফিন গনমাধ্যমকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানায়, সোমবার ভোরে রাজধানীর পান্থপথ এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।আটকের সময় অভিযুক্ত মিল্লাতের কাছ থেকে একটি দেশীয় ওয়ান শুট্যার গান ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।
র‌্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, মাদকের টাকার জন্য ঘরে ভাঙচুর ও টাকা না পেলে নিজের মাকে মারধর করতেন মিল্লাত। প্রাণ বাঁচাতে ঘরবন্দী থাকতেন মা। বেশ কয়েকবার ছেলের মারধরের কারণে গুরুত্বর আহত হন মা নুরুন্নাহার রুনু, মায়ের দায়ের করা সেই মামলায় অভিযুক্ত ছেলে মিল্লাত হোসেনকে আটক করা হয়েছে।
পুলিশ, র‌্যাব ও মামলায় এজাহার বলা হয়েছে, বখাটে মিল্লাত হোসেন (২৫) অষ্টম শ্রেণির পর্যন্ত পড়ে লেখাপড়ে ছেড়ে দেয়। পাড়ার বিভিন্ন ছেলেদের সঙ্গে মিশে মাদক সেবন শুরু করে। ৭ থেকে ৮ বছর ধরে সে খারাপ পথে চলে যায়। সে মাদকের টাকার জন্য প্রায়ই ঘরে ভাঙচুর ও মা নারুন্নাহারকে মারধর করতো। ২০১৭ সালে ওর বাবা মারা যায়।গত ৭ মে রাত ১টার দিকে কলাবাগানের নিজ বাসায় মা নুরুন্নাহার রুনুকে মারধরের করে বছানে মিল্লাত। পর দিন ৮ মে দুপুরে কলাবাগান থানায় ছেলের নামে মামলা করেন মা নুরুন্নাহার রুনু (৫১)।
এ বিষয়ে কলাবাগান থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) পরিতোষ চন্দ্র  গনমাধ্যমকে রিমান্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ওসি বলেন, আমরা মিল্লাত হোসেকে আটকের জন্য ইতোপূর্বে একাধিকবার অভিযান চালিয়েছিলাম।


  • 7
    Shares

এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button