দেশজুড়ে

শার্শার পল্লীতে মেয়ে দেখতে এসে টাকা সোনাদানা লুট করেছে প্রতারক চক্র

  • 372
    Shares

নাজিম উদ্দীন জনি, শার্শা(বেনাপোল)প্রতিনিধিঃ যশোরের শার্শায় এক পল্লী চিকিৎসকের কলেজ পড়ুয়া মেয়েকে দেখতে এসে টাকা ও সোনাদানা লুট করে নিয়ে গেছে একটি প্রতারক চক্র। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার সেতাই গ্রামের পল্লী চিকিৎসক মোঃ শাহাবুল ইসলামের বাড়িতে।

জানা যায়,শনিবার সকালে সেতাই গ্রামের মৃত আঃ আজিজ ছেলে পল্লী চিকিৎসক মোঃ শাহাবুল ইসলেমের বাড়িতে একজন লোক আসে তার কলেজ পড়ুয়া মেয়েকে দেখতে।এসে সে নিজেকে একজন সেনাবাহিনীর অফিসারের বাবা বলে পরিচয় দেয়।সে পল্লী চিকিৎসক শাহাবুলকে বলেন আপনার মেয়েকে পুত্রবধূ করতে চাই মেয়েকে দেখে ও তার খুব পছন্দ হয়েছে।পরে সে ফোনে ছেলের মায়ের সাথে কথা বলে ছেলেকে নিয়ে আসতে বলে।এদিকে শাহাবুল মেয়েকে দেখতে আত্মীয় আসছে তাদের নাস্তা আনতে বাগআঁচড়া বাজারে চলে আসে এবং পরিবারের লোক জন ও ঘরবাড়ি গোছাতে যখন ব্যস্ত হয়ে পড়ে। সুযোগ বুঝে ঔ সেনাবাহিনী অফিসারের পিতা পরিচয়দানকারী প্রতারক ঘরের আলমারি থেকে নগত ৮৪.০০০/,-(চোরআঁশি) হাজার টাকা ও ২ টি সোনার চেইন, ৫ জোড়া সোনার দুল,২ জোড়া সোনার রুলি, ১টি সোনার চুঁড়ি,সোনার আংটি ৩ টা,এবং সোনার নাকফুল ৪ টা চুরি করে নেয়।পরে ছেলের মা আর ছেলে আসছে রাস্তা চিনতে পারছে না গিয়ে এগিয়ে নিয়ে আসতে যাচ্ছি বলে সে বের হয়ে চম্পট দেয়।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী পল্লী চিকিৎসক শাহাবুল ইসলাম জানান,আমি বিকাশ এজেন্টের ব্যবসা করি।আমার বাড়িতে বিকাশের টাকা থাকে এটা গ্রামের সবাই জানে।অবশ্যয় এই প্রতারকে আমার বাড়িতে এলাকার কেউ ঠিকানা দিয়ে পাঠিয়েছে এবং সে এই চক্রের সাথে যুক্ত আছে।আমি জিডি করতে থানাতে যাচ্ছি।পুলিশ তদন্ত করলে সব বেরিয়ে আসবে।


  • 372
    Shares

Related Articles