প্রধানমন্ত্রীর সকল অর্জনকে ম্লান করার ষড়যন্ত্র চলছে : কেসিসি মেয়র

0
18

আহছানুল আমীন জর্জ, খুলনা : খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার সকল অর্জনকে ম্লান করার ষড়যন্ত্র চলছে। শেখ হাসিনার অর্জনকে সাধারণ মানুষের দোর গোড়ায় পৌছে দিতে হবে। সেজন্যে ওই সকল ষড়যন্ত্রকে প্রতিহত করতে মাদক ব্যবসায়ী, সন্ত্রাসী, ভূমিদস্যু ও অনুপ্রবেশকারীদের কোন কমিটিতে স্থান দেয়া হবে না। তিনি আরো বলেন, তৃণমূল থেকে উঠে আসা কর্মীরাই কমিটিতে স্থান পাবে।

ত্যাগী পরীক্ষিত নেতাকর্র্মীরাই আওয়ামী লীগ করবে ; কোন অনুপ্রবেশকারী নয়। তিনি সম্প্রতি খালিশপুর সহ নগরীর কয়েকটি ঘটনার উল্লেখ করে বলেন, হত্যা সহ কোন অপকর্মের দায়ভার আওয়ামী লীগ বহন করবে না। খালিশপুরের ঘটনা মাদক সংক্রান্ত উল্লেখ করে বলেন, উভয় পক্ষই মাদকের সাথে জড়িত। আর এর জন্য কোন তদ্বির করা হবে না। যারা তদ্বির করবে তাদেরকে চিহ্নিত করে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি নেতাকর্মী ও শ্রমিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একজন শ্রমিক বান্ধব প্রধানমন্ত্রী। শ্রমিকরা বঞ্ছিত হোক এমন কাজ শেখ হাসিনা করবে না। খালিশপুরের সকল মিল দেখে হেফাজতে রাখা আপনাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য। যারাই মিলের যন্ত্রাংশ চুরি করে বিক্রি করবে তাদের আটক করে পুলিশের হাতে সোপর্দ করুন। এদেরকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে। তিনি দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, দলকে সুুসংগঠিত করতে হবে। সেজন্যে ত্যাগী পরীক্ষিত নেতাকর্মীদের অর্ন্তভূক্ত করে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করে জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়নে সোনার বাংলা বিনির্মানে সহযোগিতা করতে হবে।

১২ সেপ্টেম্বর শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ৮নং ওয়ার্ড কমিউনিটি সেন্টারে খালিশপুর থানা আওয়ামী লীগ আয়োজিত বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এম ডি এ বাবুল রানা। খালিশপুর থানার সভাপতি একেএম সানাউল্লাহ নান্নু’র সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম বাশারের পরিচালনায় সভায় উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগ নেতা নুর ইসলাম বন্দ, মো. আশরাফুল ইসলাম, মো. মুন্সি মাহবুুব আলম সোহাগ, মো. শহিদুল ইসলাম, প্যানেল মেয়র আমিনুল ইসলাম মুন্না, কাউন্সিলর শেখ মোশারফ হোসেন, শেখ ফারুক হাসান হিটলু, সাফায়াত হোসেন প্যারেট, মো. খসরুল আলম, মোর্শেদ আহমেদ মনি, আব্দুস সাত্তার লিটন, কাজী এনায়েত আলী আলো, সেলিম আহমেদ, মো. শফিউল্লাহ, জিয়াউল আলম খান খোকন, মো. শাজাহান জমাদ্দার, মোল্লা হায়দার আলী, আলী আহমেদ, ইমরুল ইসলাম, জিয়াউর রহমান, শেখ আসলাম আলী, কাউন্সিলর তালাত হোসেন কাউট, মাহফুজুর রহমান লিটন, কাউন্সিলর মনিরুজ্জামান, কাউন্সিলর ডালিম, কাউন্সিলর পারভীন আক্তার, কাউন্সিলর হেনা বেগম, হুমায়ূন কবীর, মুক্তিযোদ্ধা শেখ হাফিজুর রহমান হাফিজ, তাজুল ইসলাম, শারমিন রহমান শিখা, রিপন খান, গোলাম নবী সহ থানার বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীবৃন্দ ।

সভায় দ্রুততম সময়ের মধ্যে প্রত্যেক ওয়ার্ডের পূর্ণাঙ্গ কমিটি জমা দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মবার্ষিকী উদযাপনের জন্য কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়।