বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

করোনা সঙ্কটে ক্ষুদ্র ও মাঝারী তরুণ উদ্যোক্তাদের সহযোগিতায় B’Yeah

  • 11
    Shares

কোভিড-১৯ সঙ্কটে ক্ষুদ্র ও মাঝারী তরুণ উদ্যোক্তাদের সহযোগিতার লক্ষ্যে B’Yeah, গুগল এবং ইয়ূথ বিজনেস ইন্টারন্যাশনাল- এর ‌র‌্যাপিড রেসপন্স প্রোগ্রামে যুক্ত হতে হয়েছে

ইয়ূথ বিজনেস ইন্টারন্যাশনালের (ওয়াইবিআই) এর নেতৃত্বে এবং গুগল.অর্গ এর আর্থিক সহযোগিতায় এই কর্মসূচিটি COVID-19 সঙ্কটে মাইক্রো, ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের অনলাইনভিত্তিক দক্ষতা প্রদান এবং মার্কেটিং লিংকেজে সহযোগিতা প্রদান করবে।

কোভি৩-১৯ এর প্রভাবে বিশ্ব অর্থনীতি একটি অভূতপূর্ব সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে সাধারণত কুটির, ক্ষুদ্র, মাঝারি ব্যবসা অর্থনৈতিক মন্দার জন্য সবচেয়ে ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। কোভি৩-১৯ মহামারী তরুণ (১৮-৩৫ বছর বয়সী), নারী, পুরুষসহ নিম্নবিত্ত সম্প্রদায়ের উদ্যক্তা ও ব্যবসায়ীদের উপর বিশেষ গুরুতর প্রভাব ফেলেছে। অনেকে সঙ্কট মোকাবেলার জন্য লড়াই করছেন এবং এখনই তাদের সমর্থন ও সহযোগিতা প্রয়োজন।

কোভিড-১৯ সঙ্কটে নিজের অনুভূতি ব্যক্ত করেনছেন ভারটেক্স ক্রাফটের (পাটজাত পণ্য প্রস্তুতকারী) কর্ণধার তরুণ উদ্যোক্তা মো: সাইফুল ইসলাম, তিনি বলেন, আমার মতো অনেক তরুণ উদ্যোক্তা এই মহামারী দ্বারা আক্রান্ত হয়েছেন। যদি এটি অব্যাহত থাকে তবে আমাদের ব্যবসা শীঘ্রই বন্ধ করতে হবে। এখনই প্রয়োজন বিকল্প কিছু করা এবং পরিস্থিতি সামাল দেওয়া সেই সাথে পরিস্থিতি বিবেচনা করে নতুন করে শুরু করা। এই পরিস্থিতি আত্মবিশ্বাসের সাথে মোকাবিলা করার জন্য আমাদের কেবল আর্থিকভাবেই নয়, বিকল্প পদ্ধতি যেমন ডিজিটাল দক্ষতা উন্নয়ন, অনলাইন প্রশিক্ষণ-মেন্টরিং, এবং ব্যবসায়িক পরামর্শ প্রয়োজন ।

তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, তার মতো অনেক এসএমই উদ্যোক্তারা গুগলের সহযোগিতায় বি’ইয়া যে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করতে চলেছে, তা থেকে উপকৃত হতে পারেন। তিনি বলেন, ‘আমি নিশ্চিত যে COVID-19 পরিস্থিতি মোকাবেলায় এই প্রকল্পের মাধ্যমে আমি অনলাইন কার্যক্রম সম্পর্কে নতুন কিছু শিখতে সক্ষম হব।’

কোভিড -১৯ মহামারীটি বি’ইয়া’র সহযোগিতা পাওয়া সব ধরণের উদ্যোক্তার ব্যবসাতেই প্রভাব ফেলেছে। বিশেষ করে যেসব উদ্যোগ উৎপাদন ও বিভিন্ন বিতরণ ব্যবস্থার উপর নির্ভরশীল সেগুলোই সর্বো চ্চ ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে।

কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে যে অনিশ্চয়তা সৃষ্টি হয়েছে তা পরিস্থিতিকে আরও উদ্বেগজনক করে তুলেছে এবং অর্থনৈতিক মন্দার বৈশ্বিক প্রভাব ক্ষুদ্র ও মাঝরী আকারের উদ্যোগগুলি নিশ্চিহ্ন হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে, Google.org এবং YBI এর সহায়তায়, বি’ইয়া পরিস্থিতির সাথে খাপ খাইয়ে নিতে বিকল্প উপায় হিসেবে এই মহামারী মোকাবেলায় অনলাইনভিত্তিক কার্যক্রম বাস্তবায়নের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। বি’ইয়া বাংলাদেশের যে কোন প্রান্তের প্রায় ৪০০- ৫০০ উদ্যোক্তাদের অনলাইনের মাধ্যমে ব্যবসা পরামর্শ, নতুন নতুন বিষয়ে অননলাইন প্রশিক্ষণ, মেন্টরিং সেবা প্রদানসহ ব্যবসার নতুন ধারণার আদান-প্রদানের জন্য ওয়েবিনার/ জুম-এর সেশন পরিচালনার পাশাপাশি অনলাইনে ব্যবসা পরামর্শ সেবা সরবরাহ করবে। তরুণ উদ্যোক্তারা যাতে এই সঙ্কট মোকাবেলায় নিজেদের দক্ষতা ও জানার পরিধি বৃদ্ধি করতে পারে সেই লক্ষ্যে এই কার্যক্রমে গুগলের কর্মীরা স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে বি’ইয়া’র সাথে কাজ করবেন। প্রকল্পটি ১৬ এপ্রিল ২০২০ থেকে ১৭ এপ্রিল ২০২১ বাস্তবায়ন করা হবে।

বি’ইয়া’র নির্বাহী পরিচালক আশফাহ হক বলেন, আমরা কোভিড-১৯ মহামারী সঙ্কটে তরুণ উদ্যোক্তাদের সহায়তায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ তাই, Google.org এর অর্থায়নে YBI র‌্যাপিড রেসপন্স কর্মসূচির অংশ হতে পেরে আমরা আনন্দিত। ”

বিশ্বব্যাপী তরুণ উদ্যোক্তাদের নেটওয়ার্ক ওয়াইবিআইয়ের নেতৃত্বে বিশ্বব্যাপী প্রোগ্রামটি পরিচালিত হচ্ছে। এটি ইউরোপ, মধ্য প্রাচ্য, আফ্রিকা এবং এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় ৩২ টি দেশ জুড়ে ২ লক্ষের এরও বেশি ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের সহায়তা করতে এবং COVID-19 এর প্রভাব থেকে মুক্তি পেতে সহায়তা করবে এই অনলাইনভিত্তিক উদ্যোক্তা উন্নয়ন কার্যক্রমটি সহায়ক গবে বলে মনে করা হয়। উল্লেখ্য যে, ২০০৯ সাল থেকে বি’ইয়া YBI নেটওয়ার্কের সদস্য হিসেবে বাংলাদেশে কাজ করছে।

ইয়ুথ বিজনেস ইন্টারন্যাশনালের (YBI) সিইও অনিতা টাইসেন
“বিশ্ব দিন দিন নাটকীয়ভাবে পরিবর্তিত হচ্ছে এবং আমি সর্বত্র উদ্যোক্তাদের জন্য গভীরভাবে অনুভব করি, বিশেষত যারা ছোট ব্যবসা পরিচালনা করে এবং নিম্নবিত্ত সম্প্রদায়ের, যাদেরকে প্রায়শই এই সঙ্কটের অর্থনৈতিক ধাক্কা সহ্য করতে হয়।“
“এই চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়ে, আমি বিশ্বজুড়ে উদ্যোক্তাদের সমর্থন করার জন্য আমাদের নেটওয়ার্কের র‌্যাপিড রেসপন্স কার্যক্রম দ্বারা অবিশ্বাস্যভাবে অনুপ্রাণিত হয়েছি। গুগল.অর্গ. এর নতুন অনুদানের প্রতিশ্রুতিসহ ওয়াইবিআই আমাদের এপ্রিল ২০২১ সাল ব্যাপী এই সমর্থন অব্যাহত রাখতে এবং বিশ্বব্যাপী ২ লক্ষের অধিক তরুণ উদ্যোক্তাকে কোভিড-১৯ সংকট মোকাবেলায় প্রয়োজনীয় পরামর্শ নিশ্চিত করা হবে। ”

রোয়ান বার্নেট, প্রধান, গুগল.অর্গ.ইড, ইএমইএ এবং এপিএসি
“করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব জীবন ও বিশ্ব সম্প্রদায়ের উপর এক বিপর্যয়কর আঘাত করেছে এবং ছোট ব্যবসায়ী- উদ্যোক্তারা অভিন্ন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হচ্ছেন, কারণ তারা অভিন্ন লড়াই করছেন। ইয়ূথ বিজনেস ইন্টারন্যাশনালকে এই অনুদানের মাধ্যমে বিশ্বজুড়ে বেশিরভাগ ঝুঁকির মধ্যে থাকা ক্ষুদ্র ব্যবসায়কে এই সঙ্কটের মধ্য দিয়ে পথ খুঁজে পেতে সহায়তা করার জন্য গুগল.কে সবসময় পাশে পাবে বলে আমরা আশাবাদী।

ইয়ূথ বিজনেস ইন্টারন্যাশনাল (YBI)

YBI ৫০ টিরও বেশি দেশের অভিজ্ঞ সংস্থার সমন্বয়ে একটি বিশ্বব্যাপী নেটওয়ার্ক যা, তরুণদের উদ্যোগের ধারণাগুলিকে সফল ব্যবসায় পরিণত করতে, চাকরি প্রার্থী থেকে চাকরিদাতায় পরিণত হতে এবং তরুণ সম্প্রদায়কে শক্তিশালীকরণে সহায়তা করছে। আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি এমন একটি বিশ্ব গড়তে সহায়তা করা যেখানে তরুণ উদ্যোক্তারা টেকসই অর্থনৈতিক কর্ম কার্মকান্ড পরিচালনার জন্য স্বীকৃতি এবং যে সব তরুণ ব্যবসা প্রতিষ্ঠা করতে চায় তাদের সম্ভাবনা পূরণ করতে পারবে। আমরা দক্ষতা ও অভিজ্ঞতার বিনিময় করতে এবং সাধারণ চ্যালেঞ্জগুলির সমাধানে সহযোগিতা করার জন্য আমাদের সদস্যদের সংযুক্ত করি।
গুগল.ওআরজি

গুগল.অর্গ অলাভজনক, সেবামূলক প্রতিষ্ঠান যারা মানবিক সমস্যাগুলিকে সম্বোধন করে এবং বিশ্বের বৃহত্তম চ্যালেঞ্জগুলি সমাধানে প্রযুক্তি ও , ডেটা-চালিত উদ্ভাবন প্রয়োগ করে এমন প্রতিষ্ঠানতে সহযোগিতা প্রদান করে থাকে। গুগল স্বেচ্ছাসেবকদের সহযোগিতায় পণ্য এবং প্রযুক্তিগত দক্ষতার অন্তর্ভুক্ত প্রয়োজনীয় সহায়তা এবং একে অন্যের সাথে সংযোগ স্থাপনে কাজ করে প্রয়োজনীয় উন্নয়ন ত্বরাান্বিত করছে। যারা বিশ্বাস করে যে, যারা একে অন্যের জন্য দরজা খোলা রেখে কমিউনিটিতে অনন্য পরিবর্তন ঘটানোর সম্ভাবনা রাখে এবং যারা বিশ্বাস করে উপযুক্ত পণ্য/সেবা গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন আনতে সক্ষম গুগল তাদের সাথে কাজ করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। । আমরা এমন একটি বিশ্ব চাই যা সবার জন্য কাজ করে – এবং আমরা বিশ্বাস করি যে প্রযুক্তি এবং উদ্ভাবন সূচকে চারটি মূল ক্ষেত্র যেমন, শিক্ষা, অর্থনৈতিক সুযোগ, অন্তর্ভুক্তি এবং সংকটে সাড়া দেয়া বিষয়গুলো প্রধান চালিকা হিসেবে কাজ করে।


  • 11
    Shares

Related Articles