লাইফস্টাইল

সাধারণত বাথরুমে বেশি স্ট্রোক হয়ে থাকে কেন ?

স্ট্রোক সাধারণত বাথরুমে বেশি হয়। কারণ বাথরুম এ ঢুকে গোসল করার সময় আমরা প্রথমে মাথায় ও চুল ভেজাই যা একদম উচিৎ না।এটি একটি ভুল পদ্ধতি। এইভাবে প্রথমে মাথায়য় পানি দিলে রক্ত দ্রুত মাথায় ওঠে যায় এবং কৈশিক ও ধমনী একসাথে ছিড়ে যেতে পারে। ফলস্বরূপ ঘটে স্ট্রোক।

কানাডার মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশান জার্নালে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে,, স্ট্রোক বা মিনি স্ট্রোকেরর কারণে যে ধরনের ঝুঁকির কথা ধারণা করা হতো প্রকৃতপক্ষে দীর্ঘস্থায়ী এবং আরও ভয়াবহ।
বিশ্বেরর একাধিক গবেষণা রিপোর্ট অনুযায়ী, গোসলের সময় স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বা পক্ষাঘাতে আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা দিন দিন বেড়ে চলছে। চিকিৎসকদের মতে গোসলের সময় নিয়ম মেনে গোসল করা উচিত।

সঠিক নিয়মে গোসল না করলে হতে পারে মৃত্যু ও। গোসল করার সময় প্রথমে মাথা ও চুল ভেজানো উচিত নয়। কারণ মানুষেরর শরীরের রক্ত প্রবাহ একটি নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় হয়ে থাকে।শরীরেরর তাপমাত্রা বাইরের তাপমাত্রা র সাথে মানিয়ে নিতে কিছু সময় নেই। চিকিৎসদের মতে মাথায়য় প্রথমে পানি দিলে সঙ্গে সঙ্গে রক্ত প্রবাহের গতি বহুগুণ বেড়ে যায়। ফলে বেড়ে যেতে পারে হার্টের ঝুকি।

সঠিক_গোসল_করার_নিয়ম:-
প্রথমে পায়ের পাতা ভিজাইতে হবে। এরপর আস্তে আস্তে উপরের দিকে কাধ পর্যন্ত ভেজাতে হবে। তারপর মুখে পানি দিতে হবে। সবার শেষে মাথায় পানি দেয়া উচিৎ।

এই পদ্ধতি যাদের উচ্চ রক্তচাপ, উচ্চ কোলেস্টেরল এবং মাইগ্রেন আছে তাদের অবশ্যই পালন করা উচিৎ।
এই বিষয়গুলো বয়স্ক পিতামাতা ও আত্মীয় স্বজনকে জানিয়ে রাখুন।

এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button