আন্তর্জাতিক

উত্তাল বেলারুশে বিদেশি সাংবাদিকদের অ্যাক্রেডিটেশন কার্ড বাতিল

বেলারুশে নির্বাচনে কারচুপির প্রতিবাদে বিক্ষোভের সংবাদ পাঠানোয় বিদেশি সাংবাদিকদের অ্যাক্রেডিটেশন কার্ড বা অনুমতিপত্র বাতিল করেছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। অন্যদিকে বিক্ষোভে অস্থিরতা এবং ব্যাপক ধরপাকড় চলার মধ্যেই প্রেসিডেন্ট অ্যালেক্সান্ডার লুকাশেঙ্কোর জন্মদিনে ফোন করে তাকে সমর্থন জানানোসহ মস্কো সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। খবর ভয়েস অব আমেরিকা এবং ইউরো নিউজ’র।

গত ৯ ডিসেম্বর প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে কারচুপির মাধ্যমে বিজয়ী প্রেসিডেন্ট আলেক্সাজান্ডার লুকাশেঙ্কোর পদত্যাগের দাবিতে রাজধানী মিনস্কে বিক্ষোভ করছে লাখ লাখ জনতা। কারখানায় শ্রমিকরা ধর্মঘট করেছেন। সরকারি টেলিভিশনের সাংবাদিকরা পদত্যাগ করেছেন। এর মধ্যে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) বেলারুশের ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপের চিন্তা করছে। তবে লুকাশেঙ্কো হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, ইউরোপ এমন করলে তিনি তার দেশের চারপাশে ইইউ ট্র্যানজিট রুট ছিন্ন করে দেবেন।

গতকাল রোববার ৬৬ বছর বয়সে পা দিয়েছেন বেলারুশের প্রেসিডেন্ট লুকাশেঙ্কো। দেশে নির্বচনকে কেন্দ্র করে ছড়িয়ে পড়া তিন সপ্তাহের বিক্ষোভ সামলাতে হিমশিম খাচ্ছেন তিনি।

এদিকে নির্বাচনে কোন ধরণের জালিয়াতি হয়নি বলে দাবি করেছেন প্রেসিডেন্ট লুকাশেঙ্কো। বিক্ষোভকারীরা বিদেশ থেকে মদদ পাচ্ছে বলে উল্টো অভিযোগ করেন তিনি। বিক্ষোভে ব্যাপক ধরপাকড়সহ পুলিশি নির্যাতনের শিকার হচ্ছে বিক্ষোভকারীরা। বিক্ষোভ দমনে সাংবাদিকদের ওপরও চড়াও হয়েছে বেলারুশ সরকার। প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে চলমান বিক্ষোভের প্রতিবেদন তৈরি করা ৫০ জনেরও বেশি সাংবাদিককে আটক করেছে পুলিশ। তাদের ফোন, পরিচায়পত্র জব্দ করাসহ অনুমতিপত্রও বাতিল করা হয়েছে। এই সাংবাদিকদের মধ্যে বিবিসি রাশিয়ান সার্ভিসের দুইজন সংবাদিকও আছেন। এ ছাড়া স্থানীয় অন্তত ১০ সাংবাদিকসহ কয়েকজন রুশ সাংবাদিক, রেডিও লিবার্টি, এএফপি এবং ডয়চে ভেলের মতো গণমাধ্যমের সাংবাদিকদেরও অনুমতিপত্র শনিবার বাতিল করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

জার্মানির এআরডি টিভি বলছে, তাদের দুই সাংবাদিকের অনুমোদনপত্র বাতিল করে বেলারুশ ত্যাগে বাধ্য করা হয়েছে। এর মধ্যে বেলারুশীয় প্রযোজককে আটক করা হয়েছে।

মার্কিন তহবিলে পরিচালিত রেডিও ফ্রি ইউরোপ/ রেডিও লিবারের্টি বলেছে, তাদের ৫ জন সাংবাদিকের অনুমোদনপত্র বাতিল হয়েছে। গত শুক্রবার সুইডিশ ফটোগ্রাফার পল হ্যানসেনকেও ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বেলারুশ ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বাতিল করা হয়েছে ফ্রান্সভিত্তিক গণমাধ্যম এএফপির সাংবাদিকদের অনুমোদনপত্র।

বেলারুশ রাশিয়ার সাবেক সোভিয়েত মিত্রদেশ। আর দেশটির প্রেসিডেন্ট লুকাশেঙ্ককেও মস্কো ঘনিষ্ঠ একজন মিত্র হিসাবেই দেখে। রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন এর আগে গত বৃহস্পতিবারই বেলারুশে প্রয়োজনে পুলিশ পাঠাতে প্রস্তুত বলে সে দেশের সংকটে হস্তক্ষেপ করার ইচ্ছা জানিয়েছেন।

এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button