খেলাধুলা

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে দুই মৌসুমের জন্য নিষিদ্ধ ম্যানচেস্টার

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে দুই মৌসুমের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটিকে। আর্থিক অনিয়মের অভিযোগে ক্লাবটিকে এই শাস্তি দিয়েছে ইউনিয়ন অব ইউরোপিয়ান ফুটবল এসোসিয়েশন (উয়েফা)। নিষেধাজ্ঞার সঙ্গে ৩০ মিলিয়ন ইউরো জরিমানাও করা হয়েছে এই ক্লাবটিকে।

উয়েফা জানায়, দুইটি ধারা ভঙ্গের কারণে নেওয়া হয়েছে এমন সিদ্ধান্ত। ক্লাবটি আর্থিক স্বচ্ছতার ধারা ভেঙেছে। একই সঙ্গে ইউরোপিয়ান লিগের (উয়েফা) গর্ভনিং বডির প্রতি অনাস্থা জ্ঞাপন করেছে তারা।

উয়েফা তাদের তদন্ত প্রতিবেদনে বলেছে, ২০১২ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত ম্যানসিটি উয়েফার আর্থিক স্বচ্ছতার ধারা ভেঙেছে। তারা ক্লাবের আয়ের ঠিকঠাক হিসাব দেয়নি। এই অভিযোগের অনুসন্ধানের কাজটি করেন উয়েফার প্রধান তদন্ত কর্মকর্তা।

জানা যায়, ইউয়েফার আর্থিক নীতিভঙ্গ (এফএফপি) করায় আগামী (২০২০-২১) ও (২০২১-২২) মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলতে পারবেন না সিটিজেনরা।

ম্যানসিটি মনে করছে সঠিক তদন্ত ছাড়াই পূর্বপরিকল্পনা থেকে তাদের শাস্তি দেওয়া হচ্ছে। সিটি জানিয়েছে, তারা এ সিন্ধান্তে হতাশ, কিন্তু অবাক নয়। এ বিষয়ে খেলাধুলার সর্বোচ্চ আদালত সিএএসের কাছে আবেদন করা হবে। আপিল করার পর সাজা বদলাবে বলে এক বার্তায় আশাবাদী প্রকাশ করেছে সিটি।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের এই দলটি বিবৃতিতে বলেছে, বিষয়টি খুব সহজ। উয়েফা ক্লাবের বিরুদ্ধে মামলা করেছে। তারাই মামলা চালিয়েছে। বিচারও করেছে তারা। ক্লাব যতদ্রুত সম্ভব একটি স্বাধীন বিচারের দাবি জানাচ্ছে।

উল্লেখ্য, পেপ গার্দিওলার অধীনে টানা দুই মৌসুম প্রিমিয়ার লিগ জিতেছে সিটি। ঘরে তুলেছে ইএফএল কাপও। কিন্তু অধরা থেকে যায় তাদের চ্যাম্পিয়ন লিগ শিরোপা জেতার স্বপ্ন। এরই মধ্যে আর্থিক অনিয়মে আগামী দুই মৌসুম চ্যাম্পিয়নস লিগে অংশ নিতে পারবেন না ক্লাবটি, ফলে গার্দিওলার শিষ্যদের চ্যাম্পিয়ন লিগ জেতার স্বপ্ন আরও পিছিয়ে গেল।

Comments

comments