রাত ১০:০৯ রবিবার ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

রাবিতে তিন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কুশপুত্তলিকা দাহ | রাজাপুরে অপরাধ দমনের লক্ষ্যে বিভিন্ন স্থানে অভিযোগ বাক্স স্থাপন | কালীগঞ্জ এমপি কাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট; বাগেরহাটকে বিদায় দিয়ে ফাইনালে চুয়াডাঙ্গা | পুঠিয়ায় মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সেনা সদস্য নিহত | ঝিনাইদহে শারদীয় দুর্গাপুজা উপলক্ষে আইন-শৃঙ্খলা ও নিরাপত্তা বিষয়ক মতবিনিময় সভা | খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে ঝিনাইদহে মহিলা দলের মানববন্ধন | নাগেশ্বরীতে সোনালিকা ডে’তে ফ্রি স্বাস্থ্যসেবা ও মতবিনময় সভা | আজকের আবহাওয়ার পূর্বাভাস | উলিপুরে দোকান চুরি ও মাদক মামলায় ছাত্রলীগ সভাপতিসহ আটক-৩ | সাংবাদিক কামরুজ্জামানের বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রচার; বিভিন্ন মহলের নিন্দা প্রকাশ |

টঙ্গীতে যত্রতত্র অপরিচ্ছন্ন, নোংরা অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরি করছেন লাচ্ছা সেমাই

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : জুন ১১, ২০১৭ , ১০:৫৬ পূর্বাহ্ণ
ক্যাটাগরি : ঢাকা
পোস্টটি শেয়ার করুন

এস, এম, মনির হোসেন জীবন: ঈদুল ফিতরের আর বাকী ১৫ দিন। মুসলমানদের ঈদের প্রধান আইটেম হল লাচছা সেমাই। এ সুযোগে কিছু অসাধু সেমাই কারখানা মালিক ঈদকে সামনে রেখে গাজীপুর মহানগরী শিল্পনগরী টঙ্গীর বিভিন্ন এলাকার যত্রতত্র অপরিচ্ছন্ন, নোংরা অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরি করছেন লাচ্ছা সেমাই। আর এ কারখানায় কাজ করছে অপ্রাপ্ত বয়স্ক শিশু শ্রমিক। কারখানাগুলো খাদ্যমানের নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করেই তাদের খেয়াল খুশি মত তৈরি করে যাচ্ছে লাচ্ছা সেমাই। নাই কোন বিএসটিআই অনুমোদন ও ছাড়পত্র।

নোংরা পরিবেশে তৈরি এসব সেমাই টঙ্গী ছাড়াও দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ হয়ে থাকে। অথচ ক্রেতারা জানেন না কিভাবে এবং কোথায় কোন পরিবেশে তৈরি হচ্ছে এসব সেমাই। না জেনেই পামওয়েলে ভাজা ঝকঝকে নজর কাড়া প্যাকেটে মোড়ানো এসব সেমাই ক্রেতারা দিব্যি নির্ভেজাল ভেবে কিনে নিচ্ছেন। এ অপরিচ্ছন্ন ও নোংরা পরিবেশে তৈরি ভেজাল সেমাই খেয়ে নানা রোগ ব্যাধিতে আক্রান্ত হতে পারে বলে অভিজ্ঞ চিকিৎসকরা অভিমত ব্যক্ত করেছেন।

গতকাল শনিবার বিকেলে সরেজমিনে টঙ্গীর বিভিন্ন সেমাই কারখানায় ঘুরে দেখা গেছে, আল হেলাল, আল রাব্বি, আল সুইটি, জনি, শাপলা, মক্কাসহ টঙ্গীতে ৮টি সেমাই কারখানা রয়েছে। এগুলোর মধ্যে বেশির ভাগ কারখানায় সরকারের নিয়মনীতি না মেনেই তৈরি করে যাচ্ছে ভেজাল সেমাই। এর মধ্যে কয়েকটি কারখানার নাম মাত্র পৌরসভার ট্রেড লাইসেন্স আছে। নাম মাত্র লাইন্সেসের আড়ালে তৈরি হচ্ছে ভেজাল যুক্ত নকল সেমাই। এসবের মধ্যে টঙ্গীর গাজীপুরা শিকদার মার্কেট এলাকার বিএসটিআই অনুমোদন ছাড়া নাফিসা নামের নুডুলস তৈরির কারখানায় গোপনে অত্যন্ত নোংরা অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরি করা হচ্ছে লাচ্ছি সেমাই।

স্যাঁত স্যাঁতে পরিবেশে তীব্র গরমে ময়দার খামিরের ওপর কারখানায় কর্মরত ঘর্মাক্ত উদোম শরীরের শিশু শ্রমিকদের শরীরের লোনা ঘাম ঝড়ে পড়ছে খামিরের ওপর। কারখানার ভেতরেই রয়েছে ভাংগা চূড়া টয়লেট। টয়লেট ব্যবহারের পর শ্রমিকরা অপরিচ্ছন্ন অবস্থায়ই আবার খামির তৈরির কাজে যোগ দিচ্ছে। টঙ্গীর গাজীপুরা এলাকার নাফিসা নামের নুডুলস তৈরির কারখানায় কি করে সেমাই তৈরি হচ্ছে-এখবর কোন কর্তৃপক্ষই রাখছে না। এলাকায় কোন নুডুলস বা কোন সেমাই কারখানা রয়েছে। টঙ্গীর স্টেশন রোড ও টঙ্গী বাজার এলাকায় বিভিন্ন দোকানপাঠে এসব ভেজাল সেমাই ঈদকে সামনে রেখে দেদাচেছ বেচাঁকেনা হচেছ। তুলনামূলক ভাবে গত বছরের চেয়ে সেমাইয়ের মূল্য প্যাকেট প্রতি ৫ থেকে ১০টা বেশি।

এদিকে টঙ্গীর বৌ বাজার এলাকার আল হেলাল সেমাই কারখানার খামির ও তেলের কড়াইতে থোকা থোকা মরা মাছি ও মশা পড়ে থাকতে দেখা গেছে। এসব দেখার যেন কেউ নেই। গাজীপুরার নাফিসা নুডুলস কারখানার মালিক নজরুল ইসলাম শাহীনের সাথে এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ প্রতিনিধিকে জানান, সেমাই তৈরির কোন কাগজপত্র নেই। তবে এ জন্য আবেদন করা হয়েছে বলে তিনি জানান। তবে এধরনের কোন কাগজপত্র তিনি দেখাতে পারেননি।

টঙ্গী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: ফিরোজ তালুকদার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, কোথায় ভেজাল পণ্যসামগ্রী চড়ামূল্যে বেচাঁকেনা করা হচেছ এমন অভিযোগ পেয়ে আমরা প্রয়োজনীয় আইননানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করবো।
এব্যাপারে অভিজ্ঞ চিকিৎসক ডা. নাজিম উদ্দিন আহমেদ জানান, নোংরা পরিবেশে তৈরি এসব সেমাই খেয়ে প্রথমে মানুষ ফুড পয়েজিংয়ে আক্রান্ত হবেন।

পর্যায়ক্রমে ডায়রিয়া, আমাশয়, টাইফয়েড এবং জন্ডিসসহ নানা ধরণের রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এতে মানুষের প্রাণসংহারেরও আশঙ্কা রয়েছে। এ ব্যাপারে টঙ্গী এলাকার সচেতন মানুষ ঈদের আগে বাজার থেকে নোংরা ও ভেজাল খাদ্য বন্ধ করা সহ কারখানা মালিকদের বিরুদ্বে প্রয়োজনীয় আইননানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানান।

Comments

comments