ভোলায় অতি জোয়ারে বিভিন্ন গ্রাম প্লাবিত, ঝূকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ পরিদর্শনে ইউএনও

0
112

ইয়ামিন হোসেন: ভাদ্র মাসের শুরুতের বৃষ্টি ও অতি জোয়ারের পানিতে তলিয়ে গেছে ইলিশা ফেরিঘাটের একাদিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এবং প্লাবিত হয়েছে রাজাপুরের বিচ্ছিন্ন এলাকা রামদাসপুর, ধনিয়ার গঙ্গা কির্তি, কালাসুরা, বলরাম সুরা, গুলি, ইলিশার দক্ষিন ইলিশা, রামদাসপুর কান্দী, মুরাদছবুল্লাহ্সসহ বিভিন্ন গ্রাম।

বুধবার দিনভর বৃষ্টি হঠাৎ অতি জোয়ারের পানিতে ইলিশা ফেরিঘাটের ব্লকপাড়ে থাকা দোকানপাটগুলো তলিয়ে যায়।
অতি জোয়ারের পানিতে ইলিশা ফেরির টার্মিনাল, লঞ্চঘাট ও ডুবে যায়। এই সময় দোকানঘর নিরাপদ স্থানে নিতে গিয়ে আবদুল জব্বার নামের একজন আহত হয়েছেন।

অন্যদিকে পানির স্রোতে ঝূকিপূর্ণ রয়েছে ইলিশার বেড়িবাঁধ, যে কোন সময় বেড়িবাঁধ ছুটে যাওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন এলাকাবাসী। ঝূকিপূর্ণ এলাকা পরিদর্শন করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজানুর রহমান।

এদিকে অতি জোয়ার এবং নদী উত্তাল হওয়ায় ঘাটে এসে বিপাকে পড়েছে ঢাকা, চট্রগ্রামগামী যাত্রীরা। ইলিশা ফেরি অফিসের কর্মকতা কামরুল ইসলাম জানান, অতি জোয়ারের কারনে ভোলা থেকে ছেড়ে যাওয়া ফেরিটি মজু চৌধুরী ঘাটে আটকা রয়েছে।

ইলিশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাছনাইন আহমেদ হাছান মিয়া বলেন, ইলিশার ঝূকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ মেরামত এর কাজ চলমান রয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজানুর রহমান বলেন, ঝূকিপূর্ণ ইলিশার ৭ নং ও ২ নং ওয়ার্ড এবং ধনিয়ার একটি বেড়িবাঁধ ঝূকিপূর্ণ থাকায় আমরা দ্রুত কাজ করার নির্দেশ দিয়েছি