বিকাল ৪:০৩ মঙ্গলবার ১৯শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং

ঠাকুরগাঁওয়ে বলৎকারের শিকার এক ট্রাক হেলপার

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : নভেম্বর ৬, ২০১৯ , ১০:৫০ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : রংপুর
পোস্টটি শেয়ার করুন

দিনাজপুর থেকে ঠাকুরগাঁওয়ে মালামাল ডেলিভারী করতে এসে ঠাকুরগাঁওয়ের বিশিষ্ট ধান-চাল ব্যবসায়ী মো: মাহমুদ হাসান রাজু’র ম্যানেজার মশিউর রহমানের হাতে বলৎকারের শিকার হন মো: ফাহিম হোসেন (১৯) নামে এক ট্রাক হেলপার।

গতকাল মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) দিবাগত রাতে ব্যবসায়ী রাজু’র ঠাকুরগাঁও রোড এলাকার গোডাউনে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর আজ বিষয়টি জানাজানি হলে পালিয়ে যায় সেই ম্যানেজার মশিউর আর বলৎকারের শিকার ছেলেটি বর্তমানে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের ২৯ নং বেডে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

ফাহিম হোসেন দিনাজপুরের বালূবাড়ী এলাকার মো: নামসুল হোসেন এর ছেলে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় থাকা ফাহিম জানায়, গতকাল মঙ্গলবার সে তার গাড়ীর ওস্তাদ মিরাজ এর সাথে ঠাকুরগাঁও মালামাল ডেলিভারী করতে আসে। কিন্তু রাতে মালামাল ডেলিভারী না হওয়ায় তাদের ঠাকুরগাঁও রোডে ব্যবসায়ী রাজু’র গোডাউনে রাত্রী যাপন করতে হয়।

এদিকে রাতে শোয়ার আগে সেখানকার ম্যানেজার মশিউর তাকে জোরপুর্বক পানি খেতে দেয়।সেই পানি খেয়ে সামনের দোকান থেকে একটি কলা কিনে খেয়ে রাতে তার সাথে ঘুমিয়ে পড়ে।পরে ভোররাতে ঘুম ভাঙলে সে দেখতে পায় তার শরীরে কাপড় নেই এবং সেই ম্যানেজারের শরীরেও কাপড় নেই এবং তার গেঞ্জির একসাইড ভেজা। বিষয়টি বুঝতে পেরে সে চিৎকার-চেঁচামেচি শুরু করলে আশেপাশের লোকজন এসে জড়ো হয়। এসময় কথা-বার্তার এক পর্যায়ে পালিয়ে যায় মশিউর।পরে তার ওস্তাদ মিরাজ স্থানীয় ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নকে বিষয়টি অবহিত করে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে।

ট্রাক ও ট্যাংকলরী শ্রমিক ইউনিয়নের নেতা সোহেল রানা জানান, বিষয়টি অত্যান্ত ন্যাক্কারজনক।আমরা এ ঘটনার সুষ্ঠ বিচার চাই।

এদিকে এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁওয়ের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো: মাহমুদ হাসান রাজু’র কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি।অপরাধী আমার স্টাফ বা যে কেউই হোক তাকে আইনের হাতে তুলে দিতে আমি সদর থানাকে বিষয়টি অবহিত করেছি।এখন যা করার উনারাই করবেন।

Comments

comments