বিকাল ৪:০৬ বৃহস্পতিবার ১৭ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং

আদিতমারীতে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : অক্টোবর ৮, ২০১৯ , ৯:৪৬ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : রংপুর
পোস্টটি শেয়ার করুন

আসাদুল ইসলাম সবুজ, লালমনিরহাট ॥ বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছেন প্রেমিকা ১০ শ্রেণীর যুবতী ছাত্রী (১৮)। প্রেমিকাকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে প্রতারণা করায় প্রেমিক কামরুল হোসেন (২৪) অনুপস্থিতিতে তার বাড়িতে অবস্থান করছেন। ঘটনাটি ঘটেছে, সোমবার (৭ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৬ টায় লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার সাপ্টিবাড়ী ইউনিয়নের পূর্বদৈলজোড় (পাকামাথা) গ্রামের হবিবর রহমান হবির বাড়িতে।

জানা যায়, আদিতমারী উপজেলার সাপ্টিবাড়ী ইউনিয়নের পূর্বদৈলজোড় (পাকামাথা) গ্রামের হবিবর রহমান হবির ছেলে কামরুল হোসেন (২৪) একই এলাকার মৃত কপিল মাষ্টারের নাতনী ও সাকোয়া স্কুল এন্ড কলেজের ১০ম শ্রেণীর সাথে প্রেমের সখ্যতা গড়ে ওঠে। প্রায় কয়েক বছর ধরে চলে তাদের প্রেম ও প্রনয়। বিয়ে প্রতিশ্রুতি দিয়ে কামরুল হোসেন মেয়েটির সাথে একাধিকবার মেলামেশাও করেছেন। এখন বিয়ে করতে টালবাহনা করছেন। ফলে মেয়েটি বিয়ের দাবি প্রেমিক কামরুলের বাড়িতে অনশনরত রয়েছে।

সরেজমিনে গেলে অনশনরত মেয়েটি সাংবাদিকদের বলেন, আমার বাড়ি জামারপুরে। আমি আমার নানা মৃত কপিল মাষ্টারের বাড়িতে থেকে সাকোয়া স্কুল এন্ড কলেজের ১০ম শ্রেণীতে লেখাপড়া করছি। আমাকে বিয়ে করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে কামরুল আমার সাথে একাধিকবার মেলামেশাও করেছেন।

এখন বিয়ে করতে টালবাহনা করছেন। ফলে আমি নিরুপায় হয়ে কামরুলের বাড়িতে এসেছি। আমার বিয়ে না হওয়া পর্যন্ত আমি এখান থেকে নড়বো না। তা না হলে আমি এখানে আত্মহত্যা করবো।

কামরুলের বাবা হবিবর রহমান হবির বলেন, মেয়েটি আজ সন্ধ্যায় হঠাৎ করে আমার বাড়ির আঙ্গিনায় উঠেছে। আমার ছেলে কামরুল না কি তাকে বিয়ে করতে চেয়ে মেলামেশাও করেছেন। আমার ছেলে বাড়িতে নেই। তাই তাকে বাড়িতে উঠতে দিচ্ছি না। মেয়েটি সব কথা মিথ্যা বলছেন। তাই তাকে এখান থেকে তাড়ানোর ব্যর্থ করছি।ওই ওয়ার্ড়ের ইউপি সদস্য মমতাজ আলী বলেন, আমি বিয়টি শুনেছি। তারা আমাকে কিছু বলেনি।

সাপ্টিবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অনন্ত কুমার রায় বলেন, আমাকে বিষয়টি থানা পুলিশ জানিয়েছে। আমি থানা পুলিশকে ব্যবস্থা নিতে বলেছি।

এ ব্যাপারে আদিতমারী থানার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত টিম ফিরত আসলে বলা যাবে ঘটনা কি।

Comments

comments