জাতীয়

ডিএমপি কমিশনার ও বসুন্ধরা এমডির পূজামণ্ডপ পরিদর্শন

হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সঙ্গে শারদীয় শুভেচ্ছা বিনিময় ও বসুন্ধরার পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেছেন ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া ও বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সায়েম সোবহান আনভীর।

আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় তাঁরা রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন, বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক নঈম নিজাম, কালের কণ্ঠের নির্বাহী সম্পাদক মোস্তফা কামাল, বসুন্ধরা সার্বজনীন পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি তপন চন্দ্র বণিক ও সাধারণ সম্পাদক বিজয় সাহা প্রমুখ।

ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, এদেশে হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান- সবাই মিলে সব ধর্মীয় উৎসব পালন করেন। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন- ধর্ম যার যার, উৎসব সবার। এখানে কোনো ধর্মীয় সংখ্যালঘু নেই। এ দেশে সংখ্যালঘু তারা—যারা জঙ্গিবাদে বিশ্বাস করে। সবাইকে সঙ্গে নিয়েই সেই অশুভ শক্তিকে আমরা প্রতিহত করবো।

বসুন্ধরার এমডি সায়েম সোবহান আনভীর তাঁর সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে সবাইকে শারদীয় শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, এবারের পূজার আয়োজন দেখে খুবই ভালো লাগছে। প্রতি বছরই বসুন্ধরায় পূজার আয়োজন বাড়ছে। তিনি ডিএমপি কমিশনারকে কথা বলার জন্য অনুরোধ জানান।

কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া তাঁর শুভেচ্ছা বক্তব্যে বলেন, এখানে যে চমৎকার পূজার আয়োজন এর পেছনে আছে বসুন্ধরা গ্রুপ। এখানে উপস্থিত আছেন এই গ্রুপের এমডি সায়েম সোবহান আনভীর। দেশের অগ্রগতিতে অন্যন্য ভুমিকা রাখছে বসুন্ধরা গ্রুপ। তিনি বলেন, দুর্গাপূজার উৎসব বাঙালির উৎসব। ধর্ম-নির্বিশেষে হাজার হাজার মানুষ প্রতিটি পূজা মণ্ডপে জড়ো হচ্ছেন। ঢাকার প্রতিটি পূজায় সর্বোচ্চ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এখন সবাইকে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ প্রতিষ্ঠার কাজ করতে হবে। অন্যায়-অত্যাচারের অশুরকে দূর করতে হবে। ডিএমপিপুলিশ জঙ্গি দমনের মাধ্যমে সে কাজটি করেছে।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.