সকাল ৮:০৫ শনিবার ১৯শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

গোপালপুরে ঝিনাই নদীর ভাঙ্গণে শতাব্দী প্রাচীন সড়ক বিলীণ; বিশ গ্রামের মানুষের ভোগান্তি | রাবি শিক্ষার্থীর মাথা ফাটিয়ে দিল দুর্বৃত্তরা | বরেণ্য চিত্রশিল্পী কালীদাস কর্মকারের মৃত্যুতে ন্যাপ'র শোক | ঈশ্বরদীতে ইভটিজিং এর প্রতিবাদ করায় সাংবাদিককে পেটালো ইভটিজাররা | ঈশ্বরদীতে ইপটিজিং প্রতিবাদ করায় সাংবাদিকে পেটালো ইপটিজাররা | মহেশপুরে গাজাসহ ৩ জন আটক | কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত | নিকের সঙ্গে আর নয়, ডিভোর্স চান প্রিয়াঙ্কা! | কুষ্টিয়ায় জাঁকজমকপূর্ণভাবে বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের জন্মদিন উদযাপিত | সুনামগঞ্জে দু’পক্ষের গোলাগুলিতে মাদ্রাসাছাত্র নিহত, গুলিবিদ্ধ ২ |

বান্দরবানে নব নির্মিত চা কারখানার শুভ উদ্ধোধন

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : অক্টোবর ১, ২০১৯ , ৮:০৭ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : চট্টগ্রাম
পোস্টটি শেয়ার করুন

রিমন পালিত: বান্দরবান প্রতিনিধি: বান্দরবানে বাংলাদেশ চা বোর্ড কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন সিএইচটি প্রকল্পের আওয়ায় বান্দরবানের সুয়ালক ইউনিয়নের চেীধুরী পাড়ায় ৩ লক্ষ কেজি চা উৎপাদন ক্ষমতাসম্পন্ন আধুনিক চা কারখানার শুভ উদ্ধোধন করা হয়েছে ।

১ অক্টোবর মঙ্গলবার বিকালে এই চা কারখানার শুভ উদ্ধোধন করা হয় । বাংলাদেশ চা বোর্ডের সচিব কুল প্রদীপ চাকমার সভাপতিত্বে চা কারখানার উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো: জাহাঙ্গীর আল মুস্তাহিদুর রহমান পিএসসি ,এই সময় আরো অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল খন্দকার মো: শাহিদুল এমরান , চা বোর্ডের গবেষণা ও উন্নয়ন বিয়ষক সদস্য মো: গোলাম মাওলা, অর্থ ও বানিজ্য সদস্য মো: ইরফান শরীফ, বান্দরবান জেলার চা বোর্ডের সভাপতি মংক্যচিং চেীধুরী, চা বোডের প্রকল্প পরিচালক মো: আমির হোসেন সহ আরো অনেকে ।

অনুষ্ঠানে অতিথিরা বলেন এতদিন ধরে বান্দরবানে কোন চা প্রক্রিয়াজাত কারখানা না থাকায় অএ এলাকার ক্ষুদ্রয়তন চা বাগান মালিকরা চট্টগ্রামের বিভিন্ন চা কারখানায় কাঁচা চা পাতা নিয়ে যেত ফলে অধিকাংশ সময়ে তাঁদের চা পাতার গুনগত মান নষ্ট হয়ে যেত , ফলে পাতার নায্য মূল্য প্রাপ্তি হতে বঞ্চিত হতো কৃষক ও মালিকরা ।বান্দরবানের ক্ষুদ্রয়তন চা বাগান মালিকদের আর্থ সামাজিক উন্নয়ন ও দারিদ্র বিমোচনের লক্ষে এই এলাকায় চা সম্প্রসারন প্রকল্প শুরু করা হয় । যদিও প্রক্রিয়াজাতকরন কারখানার অভাবে এ অঞ্চলে এতদিন চা সম্প্রসারন তেমন বেশি বৃদ্ধি পায়নি । তাই বান্দরবানের চা শিল্পের অগ্রগতি বৃদ্ধির লক্ষে এই কারখানা প্রতিষ্ঠা করার সিধান্ত গ্রহন করা হয়।

বর্তমানে এই প্রকল্পের অধীনে প্রায় ২০ লক্ষ চা চারা উৎপাদন করে বিনামূল্যে বিতরনের মাধ্যমে ৩০০ হেক্টর জমিতে তা আবাদ করা হবে ্আর তার জন্য বান্দরবান জেলার মোট ২৯১ জন চার্ষীকে এই চা চাষে নিবন্ধিত করা হয়েছে । অতিথিরা সকলে আশা করছেন উপযুক্ত পরিচর্যা পেলে সকলের সার্বিক সহযোগিতা পাশে থাকলে বান্দরবানেও চা চাষ একসময় আরো বেশি বৃদ্ধি পাবে ।

Comments

comments