রাত ১০:২২ মঙ্গলবার ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

মির্জাপুরে আজগানা ইউনিয়ন আ.লীগের সম্মেলনে সভাপতি মোক্তার, সম্পাদক শহিদুল | নাটোরে “টেকসই উন্নয়ন বাস্তবায়ন ও সমন্বয়” বিষয়ে সভা অনুষ্ঠিত | রাজধানীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ইন্দোনেশিয়ার নাগরিকের মৃত্যু | টানা চারবার ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দিলেন ক্যানসারজয়ী নারী | বান্দরবানে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে এপেক্স ক্লাব | বান্দরবানে যে বিদ্যালয়ে এ ভর্তির আগে সাঁতার শিখতে হয়! | ঝালকাঠিতে নদী ভাঙ্গনের কবলে দোকনঘর, নদীগর্ভে ফেরি | আবারও একসঙ্গে রণবীর-ক্যাটরিনা | লভ্যাংশ ঘোষণার পর দুই কোম্পানির দরপতন | আট বিভাগীয় শহরে হবে পূর্ণাঙ্গ ক্যান্সার চিকিৎসাকেন্দ্র |

কালীগঞ্জে বিএনপি’র দু’গ্রুপে সংঘর্ষ; গুলি ও বোমা বিস্ফোরন, আটক ১

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯ , ১০:০২ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : খুলনা
পোস্টটি শেয়ার করুন

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি: ঝিনাইদহ কালীগঞ্জে বিএনপির দু’গ্রুপের সংঘর্ষে বোমা বিস্ফোরন সহ গুলিবর্ষনের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার বিকালে শহরের থানা রোডের বিএনপি’র অস্থায়ী কার্যালয়ের সামনে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। দু’গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টাপাল্টি ধাওয়া সংঘর্ষ চলাকালীন সময়ে ৩/৪ টি শক্তিশালী বোমার বিস্ফোরন ঘটে।

খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সংঘর্ষ থামাতে ২ রাউন্ড ফাঁকা গুলি বর্ষনকরে পরিস্থতি নিয়ন্ত্রনে আনে। সংঘর্ষে ছাত্রদল নেতা রনি সহ উভয় গ্রুপের ৮/১০ জন আহত হয়। পুলিশ এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ফারুক নামে বিএনপির ১ কর্মীকে আটক করেছে। এ ঘটনায় রাতে কালীগঞ্জ থানা পুলিশ বিএনপির ২৬ জনের নাম উল্লেখ সহ অজ্ঞাত আরো ৬০ জনকে আসামী করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।

থানা বিএনপি’র একাধি সূত্রে জানায়, কালীগঞ্জে দীর্ঘদিন ধরেই বিএনপি দু’গ্রুপে বিভক্ত দলীয় কর্মকান্ড করে আসছে। সম্প্রতি জেলা বিএনপি’র আহবায়ক কমিটি গঠিত হয়েছে। সে কমিটিতে সাবেক সাংসদ আলহাজ্ব শহীদুজ্জামান বেল্টু ও বিএনপি নেতা হামিদুল ইসলাম হামিদের নাম না থাকায় তাদের অনুসারী নেতাকর্মিরা ফুসে উঠেছে। তাই মুলত এ কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করেই দলে নতুন করে বিরোধ চরমে পৌছে। এরই সুত্র ধরে মঙ্গলবার দু’গ্রুপের মধ্যে ওই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

বিএনপির এক পক্ষের নেতা সাইফুল ইসলাম ফিরোজের দাবি তিনি জেলা বিএনপি’র মিটিং শেষ করে দলের সিনিয়র নেতাকর্মিদের নিয়ে কালীগঞ্জ থানা রোডের ধান হাটায় বিএনপি অফিসে যাচ্ছিলেন। এ সময় আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা বেল্টু এবং হামিদপন্থী একদল সন্ত্রাসী তাদেরকে ধাওয়া করে। তারা এক পর্যায়ে তারা পর পর ৩ টি হাত বোমার বিষ্ফোরন ঘটিয়ে পালিয়ে যায়। সাইফুল ইসলাম ফিরোজের অভিযোগ,হামিদের ছত্রছায়ায় থাকা সন্ত্রাসীরা অনেক আগে থেকেই বেপরোয়া। তারা পরিকল্পিতভাবে এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

অপরদিকে সাবেক ছাত্রনেতা হামিদুল ইসলাম হামিদ বলেন, তিনি মারামারির বিষয়ে তেমন কিছইু জানেনা। রনি নামে তার এক কর্মীকে মারপিট করে তার পা ভেঙ্গে দিয়েছে ফিরোজ গ্রুপের সন্ত্রাসীরা। তবে বোমার বিস্ফোরণ কারা ঘটিয়েছে এটা তিনি জানেননা বলে জানান।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, মঙ্গলবার বিকালে বিএনপি’র দ’ুগ্রুপের নেতাকর্মিদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময়ে পরপর ৩ টি বোমার বিস্ফোরন হয়। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌছে ২ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আসে।

কালীগঞ্জ থানার ওসি ইউনুচ আলী জানান, বিএনপি’র দ’ুগ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে ২ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। ফারুক হোসেন (৪০) নামের একজনকে আটক করা হয়েছে।

এ ঘটনায় রাতে কালীগঞ্জ থানার এস আই দেলোয়ার হোসেন বাদী হয়ে বিএনপির ২৬ জনের নাম উল্লেখ সহ অজ্ঞাত আরো ৬০ জনকে আসামী করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।

Comments

comments