রাত ১০:৩৬ মঙ্গলবার ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

মির্জাপুরে আজগানা ইউনিয়ন আ.লীগের সম্মেলনে সভাপতি মোক্তার, সম্পাদক শহিদুল | নাটোরে “টেকসই উন্নয়ন বাস্তবায়ন ও সমন্বয়” বিষয়ে সভা অনুষ্ঠিত | রাজধানীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ইন্দোনেশিয়ার নাগরিকের মৃত্যু | টানা চারবার ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দিলেন ক্যানসারজয়ী নারী | বান্দরবানে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে এপেক্স ক্লাব | বান্দরবানে যে বিদ্যালয়ে এ ভর্তির আগে সাঁতার শিখতে হয়! | ঝালকাঠিতে নদী ভাঙ্গনের কবলে দোকনঘর, নদীগর্ভে ফেরি | আবারও একসঙ্গে রণবীর-ক্যাটরিনা | লভ্যাংশ ঘোষণার পর দুই কোম্পানির দরপতন | আট বিভাগীয় শহরে হবে পূর্ণাঙ্গ ক্যান্সার চিকিৎসাকেন্দ্র |

লেনদেনের সঙ্গে সূচকও আড়াই শতাংশ হারালো ডিএসই

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : আগস্ট ৩০, ২০১৯ , ৪:২২ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : শেয়ার বাজার
পোস্টটি শেয়ার করুন

আবারও দরপতনের খপ্পরে দেশের শেয়ারবাজার। গত সপ্তাহের পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে চার কার্যদিবসেই দরপতন হয়েছে। এতে আড়াই শতাংশের ওপরে প্রধানমূল্য সূচক হারিয়েছে প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)।

সূচকের পাশাপাশি কমেছে লেনদেনের পরিমাণ। প্রতি কার্যদিবসে ডিএসইতে গড়ে লেনদেন কমেছে আড়াই শতাংশের ওপরে। সেই সঙ্গে কমেছে বাজার মূলধন। সপ্তাহটিতে ডিএসইর বাজার মূলধন কমেছে প্রায় দুই শতাংশ।

গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস শেষে ডিএসইর বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৮০ হাজার ৮৪৫ কোটি টাকা। যা তার আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ছিল ৩ লাখ ৮৮ হাজার ৪৪০ কোটি টাকা। অর্থাৎ এক সপ্তাহে ডিএসইর বাজার মূলধন কমেছে ৭ হাজার ৫৯৫ কোটি টাকা।

বাজার মূলধন কমার পাশাপাশি গত সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমেছে। ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৫৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের মধ্যে ৪৮টির দাম আগের সপ্তাহের তুলনায় বেড়েছে। অন্যদিকে দাম কমেছে ৩০২টির। আর দাম অপরিবর্তিত ৫টির।

বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের দাম কমার ফলে ডিএসইর সব সূচকও কমেছে। গত সপ্তাহে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স কমেছে ১৪১ দশমিক শূন্য ৭ পয়েন্ট বা ২ দশমিক ৬৯ শতাংশ। আগের সপ্তাহে এ সূচকটি বাড়ে ৩৫ দশমিক ৪৩ পয়েন্ট বা দশমিক ৬৮ শতাংশ। তার আগের সপ্তাহে বাড়ে ২ দশমিক ৫৬ পয়েন্ট বা দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ।

অপর দুটি সূচকের মধ্যে গত সপ্তাহে ডিএসই-৩০ আগের সপ্তাহের তুলনায় কমেছে ৪৯ দশমিক ৯৬ পয়েন্ট বা ২ দশমিক ৭০ শতাংশ। আগের সপ্তাহে এ সূচকটি বাড়ে ১২ দশমিক ২৬ পয়েন্ট বা দশমিক ৬৭ শতাংশ। তার আগের সপ্তাহে বাড়ে ৬ দশমিক ৬১ পয়েন্ট বা দশমিক ৩৬ শতাংশ।

আর গত সপ্তাহে ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক কমেছে ২৩ দশমিক ৪০ পয়েন্ট বা ১ দশমিক ৯৪ শতাংশ। আগের সপ্তাহে এ সূচকটি বাড়ে ১৪ দশমিক ৬৩ পয়েন্ট বা ১ দশমিক ২৩ শতাংশ। তার আগের সপ্তাহে কমে ২ দশমিক ৪১ পয়েন্ট বা দশমিক ২১ শতাংশ।

সপ্তাহজুড়ে মূল্য সূচকের পতনের পাশাপাশি কমেছে লেনদেনের পরিমাণ। গত সপ্তাহের প্রতি কার্যদিবসে ডিএসইতে গড়ে লেনদেন হয়েছে ৪৪৮ কোটি ৭০ লাখ টাকা। আগের সপ্তাহে প্রতিদিন গড়ে লেনদেন হয় ৪৬০ কোটি ৬৯ লাখ টাকা। অর্থাৎ প্রতি কার্যদিবসে গড় লেনদেন কমেছে ১১ কোটি ৯৯ লাখ টাকা বা ২ দশমিক ৬০ শতাংশ।

আর গত সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২ হাজার ২৪৩ কোটি ৫৩ লাখ টাকা। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয় ২ হাজার ৩০৩ কোটি ৪৬ লাখ টাকা। সে হিসাবে মোট লেনদেন কমেছে ৫৯ কোটি ৯৩ লাখ টাকা।

গত সপ্তাহের মোট লেনদেনের মধ্যে ‘এ’ গ্রুপের প্রতিষ্ঠানের অবদান দাঁড়িয়েছে ৭৮ দশমিক ৬২ শতাংশ। এছাড়া মোট লেনদেনের ১১ দশমিক ৮৪ শতাংশ ছিল ‘বি’ গ্রুপের দখলে। মোট লেনদেনে ‘জেড’ গ্রুপের প্রতিষ্ঠানের অবদান দশমিক ৮৩ শতাংশ। আর ‘এন’ গ্রুপের অবদান ৮ দশমিক ৭১ শতাংশ।

গত সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে টাকার অঙ্কে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশনের শেয়ার। কোম্পানিটির ৯৯ কোটি ৫৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যা সপ্তাহজুড়ে হওয়া মোট লেনদেনের ৪ দশমিক ৪৪ শতাংশ। দ্বিতীয় স্থানে থাকা সিলকো ফার্মাসিউটিক্যালের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৬৭ কোটি ১৯ লাখ টাকা, যা সপ্তাহের মোট লেনদেনের ২ দশমিক ৯৯ শতাংশ। ৫৪ কোটি ২০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে মুন্নু সিরামিক ইন্ডাস্ট্রিজ।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- বিকন ফার্মাসিউটিক্যাল, ওরিয়ন ইনফিউশন, জেএমআই সিরিঞ্জ অ্যান্ড মেডিকেল ডিভাইস, মুন্নু জুট স্টাফলার্স, বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন, ওয়াটা কেমিক্যাল এবং ফরচুন সুজ।

Comments

comments