চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামে ডাস্টবিন থেকে এক লাখ পচা চামড়া অপসারণ

চট্টগ্রামে কাঁচা চামড়ার বাজারে যেন বিপর্যয় নেমে এসেছে। মৌসুমী ব্যবসায়ী ও বিভিন্ন মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ চামড়া সংগ্রহ করার পর তা বিক্রি করতে পারেনি আড়তদারদের কাছে। ফলে বিপুলসংখ্যক চামড়া রাস্তাঘাট ও ডাস্টবিনে ফেলেই চলে যেতে হয়েছে তাদের। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) বর্তমানে এসব চামড়া ভাগাড়ে নিয়ে ফেলতে কাজ করছে। ফেলে দেওয়া এসব পচা চামড়ার সংখ্যা এক লাখ হবে বলে মনে করছেন চসিক কর্মকর্তারা, যার অনেকগুলোই উন্নতমানের চামড়া ছিল।

এ বিষয়ে চট্টগ্রামের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন গণমাধ্যমকে বলেন, ‘চামড়া পচবে, সেই চামড়া চসিককে অপসারণ করতে হবে এ ধরনের কোনো ভাবনাই আমাদের কোনো কালে ছিলো না। আমরা কোরবানির দিন পশুর নাড়ি-ভুঁড়ি, বর্জ্য, রক্ত, উচ্ছিষ্টাংশ দ্রুত অপসারণের প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। সেই লক্ষ্য আমরা অর্জনও করেছি। কিন্তু পচা চামড়া অপসারণের কাজটি ছিল নতুন একটি চ্যালেঞ্জের। গভীর রাত পর্যন্ত এ কাজটিও অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে আমরা সম্পন্ন করেছি।’

ঈদের পর থেকে চট্টগ্রামের বিভিন্ন রাস্তায় ও ডাস্টবিনে জমা এসব চামড়া ৩২টি ট্রাক দিয়ে অপসারণের কাজ করছে চসিক। মঙ্গলবার রাত আড়াইটা পর্যন্ত ২০০ শ্রমিক ও ৮টি পে লোডারের সাহায্যে ৩২টি ট্রাকে ৯০ ট্রিপে প্রায় এক লাখ পচা চামড়া অপসারণ করেছে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।এ বিষয়ে চসিকের পরিচ্ছন্ন বিভাগের প্রধান শফিকুল মান্নান সিদ্দিকী যিশু গণমাধ্যমকে বলেন, চাকরিজীবনে এমনটি আর দেখিনি। বড় বড় গরুর সুন্দর সুন্দর চামড়া পচে-গলে গেছে।চট্টগ্রাম নগরের কাঁচা চামড়ার প্রধান বাজার হামজারবাগ, আতুরার ডিপোসহ বহদ্দারহাট, আগ্রাবাদসহ বিভিন্ন স্থান থেকে পচা চামড়াগুলো সরিয়ে নেওয়া হয়।

Comments

comments

Related Articles