অর্থ ও বাণিজ্য

ক্রেতা মিলছে না চামড়ার!

রাজধানীতে কোরবানির পশুর চামড়া কেনার লোক খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। অন্যান্য বছর নামাজের আগে থেকেই বিভিন্ন পাড়া-মহল্লায় অসংখ্য মৌসুমী চামড়া ব্যবসায়ীদের ভিড় দেখা গেলেও এবার তাদের দেখা মিলছে না। অন্যান্য বছর মাদরাসার লোকজন দান করা চামড়া সংগ্রহের পাশাপাশি চামড়া কিনলেও এবার তারাও আগ্রহ দেখাচ্ছে না। ঈদের দিন সোমবার সকালে সরেজমিন লালবাগের বিভিন্ন পাড়া-মহল্লা ঘুরে দেখা গেছে, কোরবানি করা বেশির ভাগ পশুর চামড়া রাস্তা ও বাসাবাড়িতে পড়ে আছে। সকাল ১০টা পর্যন্ত বহু সংখ্যক গরু ছাগল কাটাকাটির কাজ শেষ হলেও তখন পর্যন্ত চামড়াগুলো কেনার জন্য কেউ আসেননি।

রাজধানীর আজিমপুর এলাকার বাসিন্দা রহমত আলী বলেন, ‘এ বছর চামড়া কেনার জন্য একটি লোকও আসেনি এ ব্যাপারটা খুব আশ্চর্য লাগছে। তাছাড়া মাদরাসার লোকজনকে অর্ধেক দামে চামড়া কিনে নিতে বলেও রাজি করাতে পারলাম না।’স্থানীয় একজন মৌসুমী চামড়া ব্যবসায়ী বলেন, পোস্তার ব্যবসায়ীরা এবার আগে থেকে সাবধান করে দিয়েছে যে গরমের কারণে চামড়া নষ্ট হয়ে যাবে; তাই বুঝেশুনে না কিনলে ধরা খেতে হবে। এ ছাড়া দুপুর ১২টার পর চামড়া নিয়ে যেতে না পারলে দামও পাওয়া যাবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে।তিনি বলেন, সরকার প্রতি ফুট চামড়ার দাম নির্ধারণ করে দিলেও পোস্তার ব্যবসায়ীরা নানা অজুহাতে চামড়ায় ত্রুটি দেখিয়ে দাম কম দেয়। এ জন্য এত ঝুঁকি নিয়ে চামড়া না কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

Comments

comments