করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রে নতুন অতিথি

0
88

মোংলা(বাগেরহাট)প্রতিনিধি: পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রে নতুন অতিথি হয়ে এসেছে বিলুপ্ত প্রায় বাটাগুর বাসকা কচ্ছপের ৩৪ টি বাচ্ছা। বুধবার সকালে কচ্ছপটির ৩৫টি ডিমের মধ্যে ১টি ডিম নষ্ট হয়ে যায়। কচ্ছপের সদ্য ভূমিষ্ঠ বাচ্চাগুলোকে প্রজনন কেন্দ্রের হ্যাচিং প্যানের মধ্যে রাখা হয়েছে।

ধীরে ধীরে এগুলোকে লালন পালনের মাধ্যমে বড় করা হবে। গত ১০ মার্চ একটি কচ্ছপ ৩৫ টি ডিম পাড়ে। ৬৫ দিন পর বুধবার কচ্ছপটির ডিম থেকে ৩৪ টি বাচ্চা পাওয়া যায়। কচ্ছপটি ডিম পাড়ার পর এ ৬৫ দিন এগুলোকে তাপমাত্রা সংরক্ষণে বালুর মধ্যে ইনকিউবেশনে রাখা হয়েছিল।

এ ছাড়া ২৭ মার্চ অপর একটি কচ্ছপ ২১ টি ডিম পাড়ে। এ ডিম থেকে চলতি মে মাসের ২৭ বা ২৮ তারিখ বাচ্চা ফোটার সম্ভাবনা রয়েছে। করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আজাদ কবির জানান,২০১৪ সালে করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন ও লালন পালন কেন্দ্রে বিলুপ্ত প্রায় বাটাগুর বাসকা প্রকল্প চালু করা হয়। ২০১৭ সালে দুটি কচ্ছপ যথাক্রমে ৩১ ও ৩২ টি ডিম পাড়ে। তা থেকে যথাক্রমে ২৮ ও ২৯ টি বাচ্চা পাওয়া যায়।

২০১৮ সালে দুটি কচ্ছপ যথাক্রমে ২৬ ও ২০ ডিম পারে তা থেকে যথাক্রমে ৫ টি ও ১৬ টি বাচ্চা পাওয়া যায়। ২০১৯ সালে একটি কচ্ছপের ৩২ টি ডিম পারে তা থেকে ৩২ টি বাচ্চা পাওয়া যায়। এসব বাচ্চা বর্তমানে কেন্দ্রে লালন পালনের মাধ্যমে বড় হচ্ছে। প্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ার পর বিলুপ্ত প্রায় কচ্ছপের বাচ্চা সুন্দরবনের খাল ও নদীতে অবমুক্ত করা হবে।