দেশজুড়ে

তুরাগে একটি ঘুড়ির জন্য শিশুর মৃত্যু, মা গুরুতর আহত


এস,এম,মনির হোসেন জীবন : রাজধানীর তুরাগের চন্ডাল ভোগ গ্রামে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে থাকা ঘুড়ি পারতে গিয়ে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে মো: শান্ত (১৩) নামে এক শিশু নিহত ও তার মা আনোয়ারা বেগম (২৮) গুরুতর আহত হয়েছে। গুরুতর আহত আনোয়ারা বেগমকে স্থানীয় লোকজন উদ্বার করে উত্তরা ১১ নম্বর সেক্টর শিন শিন হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন। তার অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা গেছে।

এদিকে অগ্নি দুর্ঘটনার খবর পেয়ে উত্তরা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর একটি ইউনিট দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে ১৫ মিনিটের চেষ্টায় বারান্দার হ্যালিংয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় ওই শিশুর মরদেহ উদ্বার করে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন।

আজ বুধবার দুপুর ১২টার দিকে তুরাগ থানার চন্ডালভোগ পূর্ব পাড়া গ্রামের মসজিদের পাশে একটি ৭তলা বহুতল বাড়ির তৃতীয় তলায় এঘটনা ঘটে।

তুরাগ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: নুরুল মোত্তাকিন আজ বুধবার এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
পুলিশ, প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় লোকজন জানান, আজ বুধবার সকালে ৭তলা বহুতল ভবনের তৃতীয় তলার বারান্দায় দাঁড়িয়ে ঘুড়ি উড়াতে ছিল ১৩ বছরের শিশু শান্ত।এসময় তার ঘুড়িটি বাসার সামনে বিদু্্যতের তারে গিয়ে আটকে যায়। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সে ওই আটকে যাওয়া ঘুড়িটি পারার জন্য লোহার দুই খানা চিকন পাইপ এক সাথে রশি দিয়ে বেঁধে সেই ঘুড়িটি পারতে যায়। এক পর্যায়ে সে হাইভল্টিজের বিদু্্যতের তারে জড়িয়ে পড়লে তাকে উদ্বার করতে তার মা আনোয়ারা বেগম এগিয়ে গেলে সেও এক সঙ্গে ওই লোহার পাইপের সাথে আটকে যায়।এক পর্যায়ে শিশু শান্ত ওই পাইপের সাথে দীর্ঘ সময় ঝুলে থাকলেও তা মা পড়ে যায়। স্থানীয় লোকজন তুরাগ থানার পুলিশকে খবর দিয়ে থানার এসআই মো: শহিদুর রহমানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে। তখন শতশত নারী পুরুষ ঘটনাটি দেখার জন্য প্রচন্ড ভিড় করে। এরপর অগ্নি দুর্ঘটনার খবর পেয়ে উত্তরা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর স্টেশন অফিসার মোহাম্মদ হানিফের নেতৃত্বে একটি টিম দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে মাত্র ১৫ মিনিটের মধ্যে ঝুলন্ত ওই শিশুর মরদেহ উদ্বার করে স্থানীয় থানা পুলিশের নিকট হস্তান্তর করেন।

উত্তরা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর স্টেশন অফিসার মোহাম্মদ হানিফ আজ বলেন, নিহত শিশুর পিতার নাম মোহাম্মদ নূর আলম। তার মাতার নাম আনোয়ারা বেগম। তুরাগের চন্ডালভোগ গ্রামের বাড়ি নম্বর ২৮,এ-ব্লক, ৭তলা বহুতল ভবনের তৃতীয় তলায় এ ঘটনা ঘটে। বাড়ির মালিকের নাম সাইফুল ইসলাম শহর আলী।

তুরাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো: শহিদুর রহমান বলেন, আজ বুধবার বেলা পৌনে ১২টার দিকে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা দুর্ঘটনায় নিহত শিশু শান্তর মরদেহ উদ্বার করে আমার কাছে হস্তান্তর করেন। সুরতহাল রিপোর্ট শেষে নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করা হবে।এঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে।


এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button