খেলাধুলা

ইউএস ওপেন থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিলেন মহিলা টেনিস তারকা অ্যাশলে বার্টি

  • 4
    Shares

মারণ ভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা দেড় লক্ষের মাইলস্টোন ছাড়িয়ে গিয়েছে। এমতাবস্থায় করোনা আক্রান্ত এবং মৃত্যুর নিরিখে শীর্ষস্থানীয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে খেলতে যাওয়ার বিষয়টি একটি ঝুঁকিপূর্ণ কাজ হয়ে যাবে। সেই কারণে আগামী মাসে শুরু হতে চলা ইউএস ওপেন থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিলেন বিশ্বের এক নম্বর মহিলা টেনিস তারকা অ্যাশলে বার্টি।

কঠিন হলেও বিপদ থেকে বাঁচতে এই সিদ্ধান্ত খানিকটা তাকে জোর করেই নিতে হয়েছে বলে জানালেন অজি টেনিস তারকা।

দেশীয় সংবাদমাধ্যমে বার্টি জানিয়েছেন, আমি এবং আমার টিম চলতি বছর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কোনও টুর্নামেন্ট এবং ইউএস ওপেন খেলতে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ইউএস ওপেন আমার খুব পছন্দের একটি ইভেন্ট তবু সেখানে গেলে একটা ঝুঁকি থেকেই যাচ্ছে। করোনা আবহে আমি এবং আমার টিম সেখানে যাওয়ার বিষয়টি নিয়ে মোটেই নিরাপদ বোধ করছি না।

প্রথম সারির টেনিস তারকা হিসেবে ২০১৯ ফরাসি ওপেন চ্যাম্পিয়ন বার্টিই প্রথম, যিনি ইউএস ওপেন থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিলেন। তবে টুর্নামেন্ট যাতে নির্বিঘ্নে এবং নিরাপদে সম্পন্ন হয় সেজন্য যুক্তরাষ্ট্র টেনিস অ্যাসোসিয়েশনকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন অজি টেনিস তারকা।

মার্চ-এপ্রিলের তুলনায় নিউ ইয়র্কে আক্রান্তের হার বর্তমানে অনেকটা কম থাকলেও ফ্লোরিডা, টেক্সাস, ক্যালিফোর্ণিয়ার মতো জায়গাগুলি বর্তমানে হটস্পট। তাই ইউএস ওপেন থেকে নাম প্রত্যাহারের ঘটনায় সোশ্যাল মিডিয়ায় অনুরাগীদের সমর্থন আদায় করে নিয়েছেন বার্টি।

৪৫ লক্ষেরও বেশি মানুষ যে দেশে করোনা আক্রান্ত, সে দেশে বার্টির খেলতে না যাওয়ার সিদ্ধান্তকে ‘বুদ্ধিদীপ্ত সিদ্ধান্ত’ বলেই বিবেচিত করেছেন অনুরাগীরা।

২৪ বছর বয়সী বার্টি দিনকয়েক আগেই মার্কিন মুলুকে গ্র্যান্ড স্ল্যাম খেলতে যাওয়া নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছিলেন। এদিন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানালেন তিনি। আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে চলা ফরাসি ওপেনে অংশগ্রহণ থেকেও কী তিনি বিরত থাকবেন, সে ব্যাপারে আগামী সপ্তাহে তার সিদ্ধান্ত জানাবেন অজি টেনিস তারকা। বার্টি না গেলেও ইউএস ওপেনে খেলতে যাওয়ার বিষয়ে দিনকয়েক আগে সবুজ সংকেত দিয়েছিলেন ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন বিয়াঙ্কা আন্দ্রেস্কু। আগামী ৩১ আগস্ট থেকে ১৩ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে ফ্লাশিং মিডো।


  • 4
    Shares

Related Articles