জাতীয়

রেল টিকেট কাটতে জাতীয় পরিচয়পত্র বাধ্যতামূলক করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ রেলওয়ে

  • 3
    Shares

রেল ভ্রমণে টিকেট কাটতে জাতীয় পরিচয়পত্র বাধ্যতামূলক করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। নতুন এ নিয়মে পরিচয়পত্রের মাধ্যমে পরিচিতি নিশ্চিত করা না গেলে কেনা যাবে না টিকেট, করা যাবে না ভ্রমণ। মূলত টিকেট কালোবাজারি বন্ধেই এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে জানায় রেলওয়ে।

সোমবার ২৭শে জুলাই এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব অনুমোদন করেছে রেলওয়ে মন্ত্রণালয়।

রেলওয়ে মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ মাহবুব কবীর জানান, এ পদ্ধতিতে যাত্রীকে জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে রেলওয়ে ওয়েবসাইটে নিবন্ধন করতে হবে। নিবন্ধন করার পর যাত্রীর তথ্য রেলের সার্ভারে চলে যাবে। এর ফলে যাত্রীর ভ্রমণের সময় তার ছবি ও জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর দিয়ে শনাক্ত করা সম্ভব হবে। এক্ষেত্রে যারা সঠিক জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর দিয়ে নিবন্ধিত রয়েছেন, তারাই এখানে যুক্ত হবেন, বাকিরা বাদ হয়ে যাবেন।

বর্তমানে অ্যাপের মাধ্যমে যারা আগে থেকে নিবন্ধিত আছেন, নতুন নিয়ম চালুর পর তারা সঠিক হলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নতুন পদ্ধতিতে যুক্ত হয়ে যাবেন।

রেলওয়ে নতুন এ ব্যবস্থার একটি নামকরণ করেছে ‘টিকিট যার, ভ্রমণ তার’।

এজন্য রেলওয়ে মন্ত্রণালয় অগাস্ট মাসে নির্বাচন কমিশনের আওতায় জাতীয় পরিচয়পত্র প্রকল্পের সঙ্গে রেলওয়ে একটি সমঝোতা স্মারক সই করবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

নিবন্ধিত যাত্রী নিজের নামে বা ভ্রমণসঙ্গীদের নামে চারটি পর্যন্ত টিকেট কাটতে পারবেন।

অতিরিক্ত সচিব জানান, যাত্রাকালে ট্রেনে চেকার সার্ভারে থাকা যাত্রীর নাম-পরিচয়ের সঙ্গে টিকেটে থাকা নাম-পরিচয় মিলিয়ে দেখা হবে। পরিচয় মিললে ভ্রমণ করা যাবে অন্যথায় যাত্রা বাতিল হবে।

তবে যেসব যাত্রীদের জাতীয় পরিচয়পত্র নেই বা ১৮ বছরের কম বয়সীদের টিকেট কাটার প্রক্রিয়ার বিষয়ে মাহবুব কবীর বলেন, ১৬ থেকে ১৭ বয়স বয়সীদের এখন জাতীয় পরিচয়পত্র দেওয়া হচ্ছে, ফলে তারা টিকেট কাটতে পারবেন। কিন্তু ১৬ বছরের কম বয়সীদের ক্ষেত্রে এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

কবে নাগাদ নতুন নিয়মে টিকেট বিক্রি শুরু হবে? রেলের মহাপরিচালক মো. শামছুজ্জামান বলেন, আমরা এ ব্যাপারে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করার উদ্যোগ নিয়েছি, এ চুক্তি হলেই শুরু করা যাবে।


  • 3
    Shares

Related Articles