আন্তর্জাতিক

চীনের আরও ৪৭ অ্যাপ নিষিদ্ধ হচ্ছে ভারতে

  • 10
    Shares

চীনের আরও ৪৭টি অ্যাপ ভারতে নিষিদ্ধ করা হবে বলে জানা গেছে। ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের যুক্তি, আগে নিষিদ্ধ হওয়া একাধিক অ্যাপের ক্লোন অ্যাপ এখনও রয়েছে। ফলে এ দফার নিষেধাজ্ঞায় ওই ধরনের অ্যাপগুলোকেই সাধারণত টার্গেট করেছে কেন্দ্র। পাবজি (প্লেয়ার আননোন’স ব্যাটলগ্রাউন্ডস)-র মতো জনপ্রিয় অনলাইন গেমিং অ্যাপও কেন্দ্রের নিষেধাজ্ঞার কোপে চলে আসতে পারে বলে জানিয়েছে সূত্র। খবর আনন্দবাজারের।

গত ২৯ জুন টিকটক, ইউসি ব্রাউজার, শেয়ার-ইট, উই-চ্যাট, ক্যামস্ক্যানারের মতো ৫৯টি জনপ্রিয় চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছিল কেন্দ্রীয় সরকার। সে সময় তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ দাবি করেছিলেন, ভারতের সুরক্ষা, সংহতি, নিরাপত্তা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষা এবং এ দেশের সাধারণ মানুষের তথ্যের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই আইনের ৬৯ক ধারায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সে সময় লাদাখ সীমান্তে চীন এবং ভারতের মধ্যে সংঘাত ঘিরে উত্তেজনার আবহ ছিল তুঙ্গে। গত এক মাসে ভারত-চীন সীমান্ত সংঘাত খানিকটা থিতু হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে চীনের বিরুদ্ধে ফের ‘ডিজিটাল স্ট্রাইক’ হানতে চলেছে মোদি সরকার। সূত্রের খবর, আরও ৪৭টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করা হতে পারে। দ্রুত সেই অ্যাপগুলোর তালিকাও প্রকাশ করতে চলেছে কেন্দ্র।

সরকারি একটি সূত্রের মতে, স্ক্যানারে রয়েছে অন্তত ২৫০টি চীনা অ্যাপ। এর মধ্যে রয়েছে চীনা ব্যবসায়ী জ্যাক মা’র সংস্থা আলিবাবা’র সঙ্গে যুক্ত একাধিক অ্যাপও। সেই নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়তে পারে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ গেমিং সংস্থা টেনসেন্টের তৈরি করা জনপ্রিয় অনলাইন গেম পাবজিও। পাবজি ছাড়াও আরও কয়েকটি চীনা গেমিং অ্যাপ নিষিদ্ধ করা হতে পারে বলে সরকারি সূত্রে জানা গেছে। ওই সব অ্যাপ সংস্থাগুলোর বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা গ্রাহকদের ব্যক্তিগত তথ্য বিভিন্ন চীনা সংস্থার কাছে পাচার করে দিচ্ছে। এর আগেও এই একই পদক্ষেপ নিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার।


  • 10
    Shares

Related Articles