আইপিএল আয়োজন করতে চায় আরব আমিরাত

0
33

নোভেল করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) কারণে অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত হয়ে গেছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। এদিকে ভারতের করোনা পরিস্থিতি দিন দিন অবনতি হচ্ছে। এরইমধ্যে দেশটিতে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

সেই তুলনায় শ্রীলঙ্কার অবস্থা কিছুটা স্থিতিশীল। এতে স্ব-উদ্যোগে দেশটিতে আইপিএল আয়োজন করতে চেয়েছে লঙ্কার ক্রিকেট বোর্ড (এসএলসি)। ইতিমধ্যে এ খবর চাউর হয়েছে। যদিও ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) ওই খবর উড়িয়ে দিয়েছে।

অন্যদিকে এবার আইপিএল আয়োজনে আগ্রহী বলে বিসিসিআইকে প্রস্তাব দিয়েছে এমিরেটস ক্রিকেট বোর্ড (ইউএই)। বিশ্বের প্রভাবশালী ক্রিকেট সংস্থার কোষাধ্যক্ষ অরুণ ধুমল এ তথ্য দিয়েছেন।

বিসিসিআইয়ের এ কর্তা বলেন, আরব আমিরাত আইপিএল আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছে আমাদের। মূলত তারা প্রস্তুত। কিন্তু এ মুহূর্তে আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল পরিসেবা বন্ধ। তাই এখন এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়ার যৌক্তিকতা ওঠে না। তবে আমিরাতের প্রস্তাব বিসিসিআইয়ের কাছে গুরুত্ব পাচ্ছে। কারণ এর আগে সাফল্যের সঙ্গে আইপিএলের বেশ কিছু ম্যাচ আয়োজন করেছে ইউএই। ২০১৪ সালে ভারতের লোকসভা নির্বাচনের কারণে মরুর বুকে ২০ ম্যাচ খেলা হয়।

অবশ্য ঘরের মাঠে আইপিএল আয়োজনে এখনও আশাবাদী ভারতীয় বোর্ড। করোনার প্রকোপ কমলে দেশের মাটিতে মাল্টি মিলিয়ন ডলারের এ টুর্নামেন্ট আয়োজন করবে তারা।

এরইমধ্যে তুলনায় নিরাপদ কিছু স্টেডিয়াম চিহ্নিত করার কাজ শুরু করেছে বিসিসিআই। তবে ভারতের বিভিন্ন অঞ্চল রেড জোন হিসেবে ঘোষিত হয়েছে। পরিপ্রেক্ষিতে লকডাউন উঠলেও দেশটির সরকার আইপিএল আয়োজনের অনুমতি দেবে কিনা, সন্দেহ দেখা দিয়েছে।

সেক্ষেত্রে বিদেশের মাটিতে মাল্টি মিলিয়ন ডলারের এ টুর্নামেন্ট গড়ানোর সম্ভাবনা একেবারে উড়িয়ে দেয়া যাচ্ছে না। ধুমল অবশ্য এখনই এ ব্যাপারে কোনো ইতিবাচক সংকেত দিতে পারেননি।

তিনি বলেন, ক্রিকেটারদের স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা আমাদের কাছে প্রাধান্য পাচ্ছে। বর্তমানে সারা বিশ্বের যাতায়াত ব্যবস্থা কার্যত স্তব্ধ হয়ে রয়েছে। সুতরাং এ পর্যায়ে আইপিএল নিয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া সম্ভব নয়। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস