রাজধানী

রাজধানীতে ওয়ালটন শোরুমে ডাকাতির ঘটনায় ডাকাত দলের ৪ সদস্য গ্রেফতার

  • 3
    Shares

এস,এম,মনির হোসেন জীবন : রাজধানীর শেরেবাংলা নগর থানা এলাকার ওয়ালটন প্লাজা (এস টি) শোরুমের বিপুল পরিমান মালামাল ডাকাতির ঘটনায় লুন্ঠিত মালামাল উদ্ধারসহ আন্ত:জেলা ডাকাত দলের চারজন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে শেরেবাংলা নগর থানা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, মোঃ রবিউল ইসলাম, সুমন, রানা ও সাথী।গ্রেফতারকৃতরা আন্তঃবিভাগীয় ডাকাতদলের সক্রিয় সদস্য বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে তাদের হেফাজত থেকে লুন্ঠিত ১৮টি ওয়ালটন ফ্রিজ যার বাজার মূল্য-৩লাখ ৮২ হাজার ২৮৯ টাকা এবং ৩টি এলইডি টিভি যার বাজার মূল্য-৫৫ হাজার ৭১৬ টাকা উদ্ধার করা হয়।

আজ রোববার তেজগাঁও বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ হারুন-অর-রশীদ বিপিএম (বার), পিপিএম (বার) সাংবাদিকদের সাথে প্রেস ব্রিফিংকালে এ তথ্য জানান।

সংবাদ সম্মেলনে ডিএমপির তেজগাঁও বিভাগের উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা ও শেরেবাংলা নগর থানার পুলিশ কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

তিনি বলেন, গত ২৩ জুন দিবাগত রাত ১২টার দিকে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের পান্থপথে অবস্থিত ওয়ালটন প্লাজা (এস টি) শোরুম হতে মালামাল কিশোরগঞ্জ জেলার ডিলারের নিকট পাঠানোর সময় একটি খালি পিকআপ যোগে ৭/৮জন দুষ্কৃতিকারী ঘটনাস্থলে আসেন। এরপর তাদের হাতে থাকা চাপাতি দিয়ে ভয় দেখিয়ে ওয়ালটন কোম্পানীর গাড়ির ড্রাইভার ও হেলপারের হাত মুখ বেধে মালামাল নিয়ে চলে যান দুর্বত্তরা।এ ঘটনায় গত ২৪ জুন, ২০২০ শেরেবাংলা নগর থানায় ওয়ালটন শোরুম টিম ম্যানেজার মো. রানা মিয়া বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন।

ডিসি মোহাম্মদ হারুন-অর-রশীদ প্রেস ব্রিফিংয়ে জানান, মামলাটি তদন্ত শুরু করে শেরেবাংলা নগর থানা পুলিশ। মামলা তদন্তকালে বিভিন্ন তথ্য- উপাত্তের ভিত্তিতে ১ জুলাই বসিলা থেকে প্রথমে রবিউল ইসলামকে গ্রেফতার করে পুলিশ।পরবর্তীতে রবিউলকে জিজ্ঞাসাবাদে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে গত ৪ জুলাই দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার জাউচর এলাকা থেকে সুমন ও রানাকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে সাথীকে গ্রেফতার করা হয়।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ মামলার চারজন অভিযুক্ত মোঃ শাহজাহান, মেহেদী হাসান মৃধা ওরফে হাসান, মোঃ রনি ও আঃ রহিম ময়মনসিংহ জেলার ডিবি পুলিশ কর্তৃক ভিন্ন একটি মামলায় গ্রেফতার হয়ে বর্তমানে জেল হাজতে রয়েছেন।

আধুনিক তথ্য প্রযুক্তির সহায়তা ঢাকা শহরের বিভিন্ন স্থানে ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ এবং পরবর্তীতে ভিডিও ফুটেজ যাচাই-বাছাই করে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত মোঃ রবিউল ইসলামকে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করলে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেন।

ব্রিফিংকালে পুলিশের ওই কর্মকর্তা আরো জানান, গ্রেফতারকৃতরা আন্তঃবিভাগীয় ডাকাতদলের সক্রিয় সদস্য। তারা জেল হাজতে থাকাকালে একে অপরের সাথে পরিচয় হয়। এরপর এরা ডাকাতি ও দস্যুতাসহ বিভিন্ন অপরাধ সংঘটনের পরিকল্পনা করেন।


  • 3
    Shares

এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button