বিনোদন

লকডাউন মানুষের রুচি বদলে দেবে; আস্থা গিল

  • 9
    Shares

করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বের অধিকাংশ দেশই অনুসরণ করেছে লকডাউন পদ্ধতি। আর এর ফলে ছন্দপতন ঘটেছে মানুষের সাধারণ জীবনযাপনে। ভারতীয় সংগীতশিল্পী আস্থা গিল মনে করেন, লকডাউনের দৃশ্যপট সংগীতের বেলায় সাধারণের রুচিতে প্রভাব ফেলবে।

ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমসের ভারতীয় সংস্করণের খবরে বলা হয়েছে, সম্প্রতি এ বিষয়ে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন আস্থা। ‘লকডাউন আসলে নতুন সংগীতকে অনুপ্রাণিত করছে। আমি এখন অনেক বিষয় নিয়ে কাজ করছি। আমার গান লেখার দক্ষতা নিয়ে কাজ করছি। বিকাশের চেষ্টা করছি। আমি মনে করি, লকডাউন মানুষের রুচি বদলে দেবে। সবাই এরই মধ্যে দুঃখিত, তাঁরা এমন কিছু সন্ধান করছে যা তাঁদের আনন্দ, প্রেরণাদায়ী ও ইতিবাচক করে তুলবে,’ বলেন তিনি। বার্তা সংস্থা আইএএনএসের উদ্ধৃতি দিয়ে এই তথ্য জানানো হয় প্রতিবেদনে।

আস্থা গিল সম্প্রতি বিয়ে-সংক্রান্ত মজার গান ‘ভিডিও বানা দে’-তে কাজ করেন। এতে তাঁর সঙ্গে সুখ ই-র দেখা মেলে।

‘ভক্তরা এটি পছন্দ করেছিল। এটি হুট করে আসা ধারণা ছিল। আমার চাচাতো বোনসহ লকডাউনে অনেকেরই বিয়ে স্থগিত হয়েছে। সে নিয়ে তিনি সত্যিই দুঃখ পেয়েছিলেন। তাই আমরা আমাদের দলের সঙ্গে আলোচনা করছিলাম ও সেখানকার একজন এই ধারণা দেন,’ বলেন আস্থা।

লকডাউনের মধ্যে কীভাবে সময় কাটাচ্ছেন, সে সম্পর্কে আস্থা বলেন, ‘আমি রান্না করা, পরিষ্কার করা, গান করা, নাচ, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করা, সিনেমা দেখা, পাবজি খেলা, পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানো ও আমার কুকুরের সঙ্গে সময় ব্যয় করার মতো অনেক কিছুই করছি। আমি এক ধরনের প্রোডাকশনে কাজ করার পরিকল্পনা করছি এবং গান লেখার দক্ষতা নিয়ে কাজ করছি।’

এখন আস্থা বেশ কয়েকটি কাজ করছেন। ‘আমি অনেক শিল্পীর সঙ্গে আলোচনা করছি। এখনো আমার অভিজ্ঞতা দুর্দান্ত। অন্য শিল্পী ও তাঁদের মানসিকতা, তাঁদের দৃষ্টিভঙ্গি সম্পর্কে জানতে পেরে আমি এতটাই ভালো অনুভব করছি যে এ মুহূর্তে অনেকের সহযোগিতা নিয়ে কাজ করছি,’ বলেন আস্থা।


  • 9
    Shares

এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button