রাত ২:০০ বুধবার ২০শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কালো তালিকাভুক্ত হচ্ছে অর্ধশতাধিক ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান | ‘আমার বিরুদ্ধে অনুসন্ধান চালালে অনেক এমপি-মন্ত্রীর যাবজ্জীবন দণ্ড হবে’ | লবণ নিয়ে গুজব ছড়ালে কঠোর ব্যবস্থা: প্রেস নোট | দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী | শার্শায় গুজব রটিয়ে বেশী দামে লবন বিক্রি করায় ৩ অসাধু লবণ ব্যবসায়ী আটক | এক কেজির বেশি লবণ কিনলেই আটক করছে পুলিশ | সিরাজদিখানে অতিরিক্ত দামে লবন কেনা-বেচার দায়ে ৬ ক্রেতা বিক্রেতা আটক | চাটমোহরে বিডি ক্লিন’ সংগঠনটির স্বেচ্ছায় আবর্জনা পরিষ্কার | ইলিশায় প্রতিবন্ধীদের সিআরএ রিপোর্ট বৈধকরণ সভা অনুষ্ঠিত | তালতলীতে বেশী দামে লবণ বিক্রি করায় ৩ ব্যবসায়ীকে জরিমানা, একটি সিলগালা |

খন্দকার মাহবুবসহ বিএনপির ৮ আইনজীবীর আগাম জামিন

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৮ , ১০:২৪ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : আইন ও আদালত
পোস্টটি শেয়ার করুন

পুলিশের কাজে বাধা, ককটেল বিস্ফোরণসহ নাশকতার ১৯ মামলায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার মাহবুব হোসেনসহ বিএনপির আট আইনজীবীকে আগাম জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।আসামিরা হাজির হয়ে জামিনের আবেদন জানালে আজ সোমবার বিচারপতি হাবিবুল গণি ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলীর বেঞ্চ পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল না করা পর্যন্ত তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।

 

জামিন পাওয়া অন্য আইনজীবীরা হলেন-অ্যাডভোকেট অব্দুর রেজাক খান, সাবেক মন্ত্রী আমিনুল হক, সাবেক মন্ত্রী নিতাই রায় চৌধুরী, সাবেক মন্ত্রী তৈমুর আলম খন্দকার, সানাউল্লাহ মিয়া, অ্যাডভোকেট আক্তারুজ্জামান ও অ্যাডভোকেট তাহেরুল ইসলাম তৌহিদ।যে ১৯ মামলায় তারা আগাম জামিন পেয়েছেন তার মধ্যে পল্টন থানার ৩টি, আদাবর থানার ৭টি, মতিঝিল থানার ৩টি, রূপগঞ্জ থানার ৩টি, খিলগাঁও থানার ও ফতুল্লা থানার একটি করে মামলা।

 

 

জানা গেছে, খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিএনপির বিভিন্ন কর্মসূচির সময় পুলিশের কাজে বাধা, হামলা, ককটেল বিস্ফোরণ ও নাশকতার অভিযোগে চলতি মাসের বিভিন্ন সময়ে রাজধানী ও এর আশেপাশের থানায় মামলা করে পুলিশ।সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও বার কাউন্সিলের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার মাহবুবসহ বিএনপির ৫৯ নেতাকর্মীকে এসব মামলায় আসামি করা হয়।

 

 

সোমবার খন্দকার মাহবুব হোসেন তার নিজের আবেদনের পক্ষে নিজেই শুনানি করেন। এ ছাড়া অন্যদের জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। তাকে সহযোগিতা করেন ব্যারিস্টার এহসানুর রহমান।পরে এহসানুর রহমান জানান, শুনানিতে আদালতকে বলা হয়েছে, অভিযুক্তরা ঘটনাস্থলে ছিলেন না। এগুলো সব রাজনৈতিক হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা। আদালত শুনানি নিয়ে পুলিশ রিপোর্ট দাখিল না করা পর্যন্ত তাদের জামিন দিয়েছেন।

Comments

comments