দেশজুড়ে

রামেক হাসপাতালে করোনায় শিক্ষকসহ দুইজন ও উপসর্গে দুই জনের মৃত্যু


নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহীতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে শিক্ষকসহ আরো দুই ব্যক্তির মৃত্যু রবণ করেছে। অন্যদিকে আর উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মার গেছে এক ব্যাংক কর্মকর্তাসহ মোট দুজন। গত বৃহস্পতিবার রাতে তাদের মৃত্যু হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. সাইপুল ফেরদৌস। তিনি জানান, করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তিরা হলেন, নগরীর নিউ গভ. ডিগ্রি কলেজের ভুগোল বিভাগের প্রধান মাহাবুবে খোদা ও নগরীর শাহ মখদুম থানার বড় বনগ্রাম এলাকার অধিবাসী সেলিম মৃধা।

অন্যদিকে করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছে রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের প্রিন্সিপাল অফিসার ও নগরীর মহিষবাথান এলাকার এখলাসুর রহমান (৪০) ও বোয়ালিয়া থানার রামচন্দ্রপুর এলাকার আশরাফ আলীর স্ত্রী শামীমা বেগম (৪৮)। যার মাঝে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শামীমা বেগম জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়। পরে হাসপাতালের ২৯ নম্বর করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ৮টায় দিকে তার মৃত্যু হয়। পরে তার মরদেহ থেকে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আর রাত সাড়ে ১১টার দিকে মারা যান শাহ মখদুম এলাকার ব্যবসায়ী সেলিম মৃধা। তিনি করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। তার অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় তাকে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে থাকার অবস্থায় চিকিৎসা চলছিলো। গত বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ১২টার দিকে মারা যান রাকাবের প্রিন্সিপাল অফিসার এখলাসুর রহমান।

তিনি উপসর্গ নিয়ে ২৯ নম্বর করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি ছিলো। একইদিনে দিনগত রাত ১টা ৪০ মিনিটে ২৯ নম্বর করোনা ওয়ার্ডে মৃত্যু হয় নিউ গভ. ডিগ্রি কলেজের ভুগোল বিভাগের প্রধান মাহাবুবে খোদার। তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়ে রামেক হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। একইদিনে রাতে দুইজনের মৃত্যু হওয়ায় রাজশাহীতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো মোট ১১ জন। জেলায় এখন আক্রান্তের সংখ্যা ৯০২। এর মধ্যে নগরীতে রয়েছেন ৫৭০ জন। এছাড়া করোনা পজেটিভ হওয়ার পর এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন মোট ১১৪ জন।


এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button