দেশজুড়ে

রাজশাহীতে করোনা আক্রান্ত হয়ে কলেজ শিক্ষক সহ ৫ জনের মৃত্যু

  • 98
    Shares

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ রাজশাহীতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে নিউ গভ.ডিগ্রি কলেজের শিক্ষকসহ দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। আর উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন ব্যাংক কর্মকর্তাসহ আরও তিনজন। বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) রাত সাড়ে ৮টা থেকে ভোর ৪টার মধ্যে তাদের মৃত্যু হয়। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল সূত্রে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতরা হলেন- মহানগরীর শাহমখদুম থানার জিয়াপার্ক এলাকার সেলিম মৃধা (৫০) ও রাজশাহী নিউ গভ. ডিগ্রি কলেজের ভূগোল বিভাগের প্রধান মাহাবুবে খোদা (৫০)। আর উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃতরা হলেন- রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের প্রিন্সিপাল অফিসার মহানগরীর মহিষবাথান এলাকার এখলাসুর রহমান (৪০), নগরীর রামচন্দ্রপুর এলাকার আশরাফ আলীর স্ত্রী শামীমা বেগম (৪৮) এবং তেরোখাদিয়া এলাকার মেরাজুল ইসলাম (৪০)।

রামেক হাসপাতাল সূত্র জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে শামীমা বেগম জ্বর ও শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। হাসপাতালের ২৯ নম্বর করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ৮টার দিকে তার মৃত্যু হয়। মারা যাওয়ার পর পরীক্ষার জন্য তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

রাত সাড়ে ১১টার দিকে মারা যান শাহমখদুম এলাকার ব্যবসায়ী সেলিম মৃধা। তিনি করোনা আক্রান্ত ছিলেন। অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় তাকে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল।
এরপর রাতে সোয়া ১২টার দিকে মারা যান রাকাবের প্রিন্সিপাল অফিসার এখলাসুর রহমান। তিনি উপসর্গ নিয়ে ২৯ নম্বর করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি ছিলেন। তার দাফন করা হবে গ্রামের বাড়ি মাগুরা জেলায়।

রাত ১টা ৪০ মিনিটে ২৯ নম্বর করোনা ওয়ার্ডে মৃত্যু হয় নিউ গভ. ডিগ্রি কলেজের ভূগোল বিভাগের প্রধান মাহাবুবে খোদার। তিনি করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। একই ওয়ার্ডে ভোররাত ৪টার দিকে মারা যান মেরাজুল ইসলাম। মৃতদের মধ্যে মেরাজুল, শামীমা বেগম ও সেলিম মৃধাকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন রাজশাহীতেই দাফন করবে। আর শিক্ষক মাহাবুবে খোদার দাফন করা হবে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ভোলাহাট উপজেলায়। উপসর্গে মৃত ব্যাংক কর্মকর্তা এখলাসুর রহমানকে তার গ্রামের বাড়ি মাগুরায় দাফন করা হবে। বৃহস্পতিবার রাতে করোনায় দুইজনের মৃত্যু হওয়ায় রাজশাহীতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১১ জনে। জেলায় এখন করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৯০২ জন। জেলা ও মহানগরে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১১৪ জন।


  • 98
    Shares

এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button