দেশজুড়ে

ওয়ারীতে লকডাউন নিয়ে বিভ্রান্তি, প্রজ্ঞাপনে সড়কের নাম ভুল


ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ‘ওয়ারী লকডাউন’ নিয়ে তৈরি হয়েছে নতুন বিভ্রান্তি। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রজ্ঞাপনের সঙ্গে মিল নেই সংশ্লিষ্ট এলাকার সড়কের নামের। অন্যদিকে কোন সড়ক কতটুকু লকডাউন হবে তা নিয়েও সংশয়ে আছেন স্থানীয়রা। কাউন্সিলর বলছেন, লকডাউন এলাকা সরেজমিনে পরিদর্শন না করায় কিছু ভুল রয়ে গেছে।

আসছে ৪ জুলাই থেকে লক ডাউনে যাচ্ছে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ওয়ারীর ৪১ নং ওয়ার্ড। এরই মধ্যে সড়ক ও স্থান নির্ধারণ করে দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। কিন্তু স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পাঠানো সড়কের নামের সাথে মিল নেই স্থানীয় সড়কের। এছাড়া প্রজ্ঞাপনে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের জয়কালি মন্দির থেকে বলধা গার্ডেন অংশকে লকডাউন করার কথা বলা হলেও স্থানীয় প্রশাসন লকডাউন এলাকা চিহ্নিত করে যে ম্যাপ দিয়েছে সেখানে এই অংশকে রাখা হয়েছে লকডাউনের বাইরে।

এছাড়া প্রজ্ঞাপনে বিভিন্ন সড়কের নাম যেমন ভুল করা হয়েছে তেমনি এমন রাস্তার কথাও বলা হয়েছে বাস্তবে যার অস্ত্বিত নেই ওয়ারী এলাকায়। এমন বাস্তবতা নিয়েই লকডাউন হচ্ছে ওয়ারী ৪১নং ওয়ার্ড এই লকডাউন নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যেও আছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। এখনো জানা নেই কি করা যাবে কি যাবে না। স্থান নির্ধারণে কিছুটা সমস্যার কথা স্বীকার করছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিও। আশ্বাস দ্রুতই তা সমাধানের।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধি আলো বলেন, ভুল কিছুটা হয়েছে, তবে এটা তো আমাদের কাছ থেকে আসে নাই। এটা স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে এসেছে।

এদিকে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী জানান, যেসব এলাকায় করোনা রোগী পাওয়া যাবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরামর্শক্রমে পর্যায়ক্রমে সবই লকডাউন হবে।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেন, আমরা যেটা করছি সেখানে কিছু সফল হচ্ছে, কিছু ভুল আছে। তবে সাফল্য তো আছেই। কিন্তু আমরা যদি হাত গুটিয়ে বসে থাকি। তবে এটা তো আরো ছড়াবে।

করোনা সংক্রমণ রোধ করার জন্য রেড জোন ভিত্তিক লকডাউনের অংশ হিসেবে ২১ দিনের জন্য লকডাউন করা হচ্ছে ওয়ারী।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!


এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button