দেশজুড়ে

হিজলায় রহস্যজনকভাবে গৃহবধুর আত্মহত্যা


হিজলা প্রতিনিধি: বরিশালের হিজলা উপজেলার বাহেরচর গ্রামের কবির হোসেনের স্ত্রী রহিমা বেগম ২৮ জুন রবিবার বিকাল সারে ৪ টার দিকে স্বামীর ঘরের আরার সাথে গলায় হাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। জানাযায় স্বামী স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক কিছু বিষয় নিয়ে কথায় কাটাকাটি হয়। এর এক পর্যায়ে স্ত্রী রহিমা তার বাবার বাড়িতে ফোন করে বলে বাবার বাড়ি চলে আসবে। একথা শুনে ছোট বোনে স্বামী শ্রীপুর গ্রামের ফারুক ঘটনাস্থলে যায়, গিয়ে কি হয়েছে রহিমার কাছে জানতে চায়, এবং বলে বাড়িতে গেলে একেবারে নিয়ে যাবে।

এই বলে কবির ও ফারুক চা খাওয়ার জন্য পাশবর্তী দোকানে যায়। ২ জনেই চা খেয়ে বাড়িতে এসে দেখে ঘরের দরজা বন্ধ। এই দেখে দরজা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে দেখে ঘরের আরার সাথে ওরনা দিয়ে গলায় ফাঁস দেওয়া তখন দু জনেই গলার ফাঁস খুলে জীবিত আছে দেখে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষণা করে। এমনটাই জানায় রহিমার স্বামী কবির ও বোনের স্বামী ফারুক। পরে রহিমার লাশ তার বাবার বাড়ি শ্রীপুর নিয়ে যায়। সেখান থেকে হিজলা থানা পুলিশ রহিমার স্বামী কবিরকে আটক করে।

হিজলা থানা অফিসার ইনচার্জ আসীম কুমার সিকদার জানায়, স্বামী স্ত্রী ঝগড়া হয়ে আত্মহত্যা করেছে, এব্যপারে হিজলা থানায় মামলা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল প্রেরণ করা হয়েছে। এবং রহিমার স্বামীকে আটক করা হয়েছে।


Related Articles