দেশজুড়ে

গাইবান্ধায় নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি : প্লাবিত নিম্নাঞ্চল

  • 29
    Shares

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা: উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে গাইবান্ধার নদ-নদী গুলোতে ব্যাপকহারে পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের দেয়া তথ্যানুযায়ী, রবিবারবার পর্যন্ত ফুলছড়ি পয়েন্টে ব্রহ্মপুত্র নদীর পানি বিপদসীমার ৫৯ সেন্টিমিটার ও ঘাঘট নদীর পানি ৩৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

গাইবান্ধার ফুলছড়ি, সুন্দরগঞ্জ ও সাঘাটা উপজেলার একের পর এক গ্রাম প্লাবিত হচ্ছে। এতে পানিবন্দি হয়ে পড়ছেন হাজারো মানুষ। ব্রহ্মপুত্র নদবেষ্টিত নিম্নাঞ্চল ফুলছড়ি উপজেলার গজারিয়া, খাটিয়ামারী, ইউনিয়নের বেশিরভাগ এলাকা ও যমুনা নদীবেষ্টিত সাঘাটা উপজেলার হলদিয়া, পালপাড়া, চিনিরপটল, চকপাড়া, পবনতাইড়, থৈকরপাড়া, বাশহাটা, মুন্সিরহাট, গোবিন্দি, নলছিয়াসহ বিভিন্ন গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

সুন্দরগঞ্জ উপজেলার চণ্ডীপুর, কাপাসিয়া, তারাপুর, বেলকা, হরিপুর, শ্রীপুর ও ভাষার পাড়া গ্রামে পানি ঢুকতে শুরু করেছে। তিস্তা ও ঘাঘট নদীবেষ্টিত সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। গাইবান্ধার বালাসীঘাট এলাকার ওয়াপদা বাঁধের পূর্ব এলাকায় গত বছরের ভাঙ্গা বাঁধের অংশ দিয়ে পানি ঢুকে প্লাবিত হয়েছে ভাষার পাড়া গ্রাম। ফলে এলাকার লোকজনের মধ্যে বন্যা ও ভাঙ্গন আতঙ্ক বিরাজ করছে।

বসতবাড়িতে বন্যার পানি ওঠায় গবাদিপশু নিয়ে বিপাকে পড়েছেন অনেকে। আবার কেউ কেউ আশ্রয় নিচ্ছে বাধে। পানির স্রোতে বিভিন্ন পয়েন্টে ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। এলাকাবাসির দাবি সময় মত বাধের কাজ করলে তাদেও বন্যার কবলে পরতে হত না।

পানিবন্দি পরিবারের সংখ্যা এখনও জেলা বা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়নি। তবে পানি বৃদ্ধি আগামী চারদিন পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে বলে পানি উন্নয়ন বোর্ড জানিয়েছে।


  • 29
    Shares

Related Articles