দেশজুড়ে

মির্জা আজমের শুভেচ্ছায় সিক্ত করোনা জয়ী সাংবাদিক চিকিৎসকসহ ৪০জন


আবু সায়েম মোহাম্মদ সা’-আদাত উল করীম: জামালপুরে এখন পর্যন্ত সর্বমোট ১০৪ জন করোনা ভাইরাস পজেটিভ সনাক্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ৮ মে ২০২০ শুক্রবার ৪০জন করোনা ভাইরাস সংক্রামন রোগী সুস্থ্য হয়েছেন। করোনা জয়ীদেধ্য মধ্যে ৬ চিকিৎসক, ৭ স্বাস্থ্যকর্মী ও সাংবাদিক মেহেদী হাসানসহ ৪০ জন সুস্থ্য হয়েছেন।

৮মে (শুক্রবার) বিকেলে তাদেরকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়। জামালপুর শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে উপস্থিত হয়ে করোনা যুদ্ধ জয়ীদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান বাংলাদেশ আওয়ামী কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক পাট ও বস্ত্র প্রতিমন্ত্রী ও পাট ও বস্ত্র মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবং জামালপুর- ৩ আসন থেকে টানা ৬ বার নির্বাচিত জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মির্জা আজম এমপি।

জেলা স্বাস্থ্য প্রশাসন জানায়, করোনা আক্রান্তদের মাঝে ৬ নারীসহ ৪০ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট ২ দফা নেগেটিভ আসায় তাদেরকে আইসেলেশন থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। সুস্থ হয়ে উঠা ৪০ জনের মধ্যে হোম আইসোলেশনে ছিলেন ১১ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরাদের মধ্যে সদর উপজেলার ১৭, মেলান্দহের ৩, মাদারগঞ্জের ৯, ইসলামপুরের ১, দেওয়ানগঞ্জের ২, বকশীগঞ্জের ২ এবং সরিষাবাড়ির ৬ জন। এদের মধ্যে ৬ জন চিকিৎসক, ৭ জন স্বাস্থ্যকর্মী ও একজন সংবাদকর্মী রয়েছেন। এর আগে জামালপুর শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের আইসোলেশন থেকে দুই দফায় সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেন আরও ৯জন। এ নিয়ে জেলায় ৪৯জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হলেন।

জামালপুর ‌শহরের মনিরাজপুরে অবস্থিত জামালপুর শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা বিজয়ীদের শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম বলেন, করোনা রোগ হলেই মুত্যু দেশজুড়ে আতংকের মধ্যে এই ৪০ জন করোনার সাথে লড়াই করে একসাথে সুস্থ্য হয়ে উঠে আমাদের সাহস যুগিয়েছে।

করোনার সন্মুখ যুদ্ধে অংশগ্রহনকারী ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে তিনি আরো বলেন, আপনারা জীবনবাজি রেখে করোনা রোগী চিকিৎসা সেবা দিয়ে সুস্থ্য করে তুলেছেন। মুক্তিযুদ্ধে সন্মুখ যুদ্ধে অংশ নিয়ে মুক্তিযোদ্ধারা বীর প্রতিক, বীর বিক্রম ও বীর উত্তম খেতাব পেয়েছিল। সরকারের তরফ থেকে করোনার সন্মুখ যুদ্ধে অংশ নেয়াদের খেতাব দেয়া হলে জামালপুরে ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মীদের এই সন্মুখ যুদ্ধের অবদানের কথা বলবো। এছাড়া তিনি করোনাজয়ীদের আগামী দিন গুলো সুস্থ্য ও সুন্দর কামনা করেন।

এসময় স্বাস্থ্য বিভাগের উর্ধতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। জেলায় এখন পর্যন্ত করোয় আক্রান্ত হয়েছেন ১০৪জন। এদের মধ্যে মৃত্যুর পর ২ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয় এবং চিকিৎসাধীন অবস্থায় একজন মৃত্যুবরণ করেন।


এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button