শ্রীনগরে তালের শাঁষের জমজমাট বিকিকিনি

0
13

আরিফুল ইসলাম শ্যামল: পুষ্টি গুনে ভরা কচি তালের শাঁস এখন সস্তায় বিকিকিনি হচ্ছে। গ্রীষ্মকালীন তাল নামক ফলটি মানুষের খাবার দাবারে নানাবিধ ব্যবহার হয়ে আসছে প্রচীনকাল থেকে। বিক্রমপুর তথা ঐতিহ্যবাহী বিক্রমপুরের মানুষের খাবারের তালিকায় পাকা তাল ও কাঁচা কচি তালের শাঁস অতিপ্রিয় একটি খাবার। তবে এই সিজনে কচি তালের শাঁসের কদর বেশী।

লক্ষ্য করা গেছে, শ্রীনগর উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজার, রাস্তাঘাটের ফুতপাত ও মহল্লার মোড়ে মোড়ে দেদারছে বিক্রি হচ্ছে তালের শাঁস। প্রতিটি কচি তালের শাঁস বিক্রি হচ্ছে ৪-৬ টাকায়। যদিও আকার অনুসারে এর দাম কম বেশী হয়ে থাকে। গ্রাম বাংলার সব খানেই দেদারছে বিক্রি হচ্ছে কচি তালের শাঁস। ধনী ও গরীবের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে সকলের কাছে লোভনীয় এই খাবারটি কিনতে ভিড় জমাচ্ছেন। ক্রেতাদের চাহিদা অনুযায়ী তাদের পছন্দের আচ্ছো কচি তালগুলো কেটে শাঁস বের করে দিচ্ছেন দোকানিরা। এতে করে শিশুসহ বৃদ্ধরাও শাঁস নিতে লাইনে দাড়িয়ে পরছেন। এছাড়া তালের শাঁস মানব দেহের জন্যও বেশ উপকারী একটি খাবার।

এ সময় শাঁস কিনতে আসা মো. আলম মিয়া (৫৫) বলেন, দোকানি তাল কাটায় ব্যস্ত। লাইনে থাকা ২ জনের পরে আমার সিরিয়াল। তালের শাঁস নিতেই অপেক্ষা করছি। শিশু ক্রেতা আবিব (৮) ও সামি (৯) বলেন, তারাও কচি তালের শাঁস কিনতে অপেক্ষা করছেন। রোজ বিকালে তালের শাঁস নিতে আসেন তারা। শাঁস বিক্রেতা মো. মঈন শেখ (৪৫) বলেন, তিনি প্রতি বছরই এই সময়ে কচি তালের শাঁস বিক্রি করেন। স্থানীয়ভাবে ও মাওয়া ঘাটসহ ফরিদপুর থেকে পাইকারীতে কাঁচা তাল সংগ্রহ করেন তিনি। স্থানীয় বাজারে ও রাস্তার মোড়ে তা খুচরা বিক্রি করেন। ১০০টি হিসাব অনুযায়ী কাঁচা তালের বাধি পাইকারী দামে ১০০০-১২০০ টাকায় ক্রয় করছেন তিনি। প্রায় মাস ব্যাপী শাঁস বিক্রি করে তার আয় ভালোই হচ্ছে।

বিক্রমপুরের কৃতি সন্তান ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক ডাঃ এসএম রাশেদুল হাসান রাশেদ বলেন, প্রতি ১০০ গ্রাম কচি তালের শাঁসে রয়েছে ৮৭ কিলোফ্যানারি, ৮ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম, ৮৭.৬ গ্রাম পানি, ০.৮ গ্রাম আমিষ, ০.১ গ্রাম ফ্যাট, ১০.৯ গ্রাম কার্বোহাইড্রোটস, ১ গ্রাম খাদ্যআঁশ, ২৭ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম, ৩০ মিলিগ্রাম ফসফরাস, ১ মিলিগ্রাম লৌহ, ০.০৪ গ্রাম থায়ামিন, ০.০২ মিলিগ্রাম রিবোফাভিন, ০.৩ শিলিগ্রাম নিয়াসিন ও ৫ মিলিগ্রাম ভিটামিন। তালের শাঁস শরীরের পানি শূন্যতা দূর করে। শাঁসে বিদ্যমান ভিটামিন সি ও বি কমপ্লেক্স রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর পাশাপাশি লিভারের সমস্যা, রক্তশূণ্যতা দূরী করণসহ মানুষের ত্বকের যতেœও বেশ উপকারী। প্রচুর পরিমানে কচি তালের শাঁস খাওয়ার পরার্মশ দেন এই চিকিৎসক।