দেশজুড়ে

রাজশাহীতে দিনে দুপুরে ৩৫ লাখ টাকা ছিনতাই নিয়ে রহস্য


নিজস্ব প্রতিবেদকঃ রাজশাহীতে দিনেদুপুরে প্রকাশ্যে ৩৫লাখ টাকা ছিনতাই হয়েছে রহস্যজনভাবে। বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নগরীর অলোকার মোড়েে এ ঘটনা ঘটে। মোবাইল ফোন ভিভো’র শোরুম থেকে টাকা নিয়ে ডাচ বাংলা ব্যাংকে জমা দিতে যাওয়ার পথেই এ ঘটনা।

তবে ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও সিসিটিভি ফুটেজ দেখে পুলিশ বলছে, ছিনতাইয়ের ঘটনা সাজানো নাটক মনে হচ্ছে। ঘটনাস্থল থেকে পরিদর্শন শেষে বোয়ালিয়া মডেল থানার ওসি নিবারণ চন্দ্র বর্মণ ইউনিভার্সাল২৪নিউজকে জানান, অলকার মোড়ে অবস্থিত ভিভো শোরুম থেকে একজন কর্মচারী দুটি ব্যাগে করে ৩৫ লাখ টাকা নিয়ে সড়ক দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিল বলে দোকান মালিক রিঙ্কুর দাবি। ব্যাংকে যাওয়ার নাকি সেই টাকা ছিনতাইও হয়েছে। খবর পেয়েই পুলিশ ছুটে যায় ঘটনাস্থলে।

ওসি নিবারণ চন্দ্র আরো জানান, সিসিটিভি ফুটে দেখা যাচ্ছে, দোকানের ছেলেটি দুটি ব্যাগ হাতে নিয়ে হাঁটছিল সড়কে।এসময় রিক্সার মতো ধীরগতিতে আসা মোটরসাইকেলের দুই আরোহীর একজন একটি ব্যাগ টান দিয়ে নিয়ে চলে যায়। ওই ব্যাগেই নাকি ৩৫লাখ টাকা ছিল। কিন্তু আরেকটি ব্যাগে (একশ’ টাকার নোট) একলাখ টাকা ছিল। সেটা ছিনতাই হয় নি। রহস্যজনক বিষয় হলো-মোটরসাইকেল আরোহী ব্যাগটি নেয়ার সময় বহনকারী কোনো চিৎকার করে নি।

তার শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্নও নেই। তাদের গতিবিধি ও কর্মতৎপরতা দেখেই মনে হচ্ছে এটি সাজানো ঘটনা। তবে বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এর আগে চলতি বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি অলোকার মোড় এলাকায় ভিভোর শোরুমে আগুন লাগে। ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট এক ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ওইদিন সকালে স্থানীয়রা সাঁটারের ফাঁক দিয়ে ধোয়া বের হতে দেখে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেন।

এরই মধ্যে ভিভো শো-রুমের কর্মী ফয়সাল দোকানের সাঁটার খুলে ভেতরে ঢুকলেই আগুনের তাপে কাঁচ ফেটে ছড়িয়ে পড়লে তিনি আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে ঘটনাস্থলে পৌঁছে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট। তারা প্রায় এক ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। এই ভিভোর শোরুমের মালিক রিঙ্কু।স্থানীয় একাধিক ব্যবসায়ী বলছেন, রাজশাহী শান্তির নগরী। দিনেদুপুরে এভাবে ছিনতাইয়ের ঘটনার কোনো রেকর্ড নেই।

এছাড়া এই সড়কে সব সময় প্রচুর মানুষের সমাগম। এ ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে না। বা ছিনতাইয়ের সময় চিৎকার করলেই বহু মানুষ বেরিয়ে আসতো। তাও করে নি। কাজেই আগুন লাগা ও টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা রহস্যজনক। দুটি ঘটনাই তদন্ত করা উচিত। তবে ভিভো শোরুমের মালিক রিঙ্কুর দাবি তার ৩৫লাখ টাকা ছিনতাই হয়েছে।


এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button