খুলনায় ডাঃ রকিব হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত

0
5

খুলনা প্রতিনিধি : ১৭ জুন বুধবার খুলনার রাইসা ক্লিনিকের মালিক ডাঃ মোঃ আব্দুর রকিব খান নিহতের ঘটনায় বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে কর্মরত চিকিৎসকরা। বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন (বিএমএ) ও বাংলাদেশ প্রাইভেট হাসপাতাল ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনাস্টিক ওনার্স এসোসিয়েশন (বিপিএইচসিডিওএ) খুলনা জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ এই বিক্ষোভ কর্মসূচিতে অংশ নেন।

অপর দিকে ডাঃ রকিব হত্যার ঘটনায় খুলনা সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে । পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে মঙ্গলবার রাতে আব্দুর রহিম নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে।

বিক্ষোভ কর্মসূচি শেষে খুলনায় কর্মরত চিকিৎসকদের এক সভায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও কোভিড হাসপাতাল বাদে সকল চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ১৮ জুন বৃহস্পতিবার ডাঃ রকিব হত্যার প্রতিবাদে ও দোষীদের বিচারের দাবিতে খুলনা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

বুধবার দুপুর ১টার দিকে খুলনা মহানগরীর সাতরাস্তার মোড়ে অনুষ্ঠিত সমাবেশে ক্ষোভে ফেটে পড়েন চিকিৎসকরা। গরীবের বন্ধু খ্যাত ডাঃ রকিব খানের ওপর হামলা চালিয়ে তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে জানানো হয়। দোষীদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবী জানিয়ে চিকিৎসক নেতৃবৃন্দ বলেন, সিসি টিভির ফুটেজে ডাঃ রকিবের ওপর নির্মমভাবে হামলা চালিয়ে হত্যার প্রমাণ রয়েছে। তারপরও পুলিশ মামলা নিতে ও আসামীদের গ্রেফতার করতে গড়িমসি করছে। এই হত্যার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা না নিলে লকডাউন করে চিকিৎসা সেবা বন্ধ রাখা হবে।

কর্মস্থলে চিকিৎসকদের নিরাপত্তা না দেওয়া পর্যন্ত কেউ কর্মে ফিরে যাবে না। হামলার সাথে জড়িতদের ক্রস ফায়ার দেওয়ার দাবী জানিয়ে তারা বলেন, ধর্ষনের ঘটনায় যদি ধর্ষককে ক্রসফায়ার দেওয়া হয়। তবে করোনা দূর্যোগের মধ্যেও সেবা দিয়ে যাওয়া একজন চিকিৎসককে হত্যার ঘটনায়ও কেনো দোষীদের ক্রস ফায়ার দেওয়া হবে না? প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে চিকিৎসকদের সেবা দেওয়ার একটা নীতিমালা প্রণয়নের অনুরোধ জানিয়ে তারা আরও বলেন, একজন চিকিৎসককে তার কর্মস্থলে এভাবে নির্মমভাবে হত্যা করা হলে পেশায় নিরাপত্তা থাকে না। চিকিৎসা সেবার মত মহান পেশায় নিরাপত্তা না থাকলে সেবা প্রদান সম্ভব নয় ।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন খুলনা বিএমএ’র সভাপতি ডাঃ শেখ বাহারুল আলম। বক্তৃতা করেন বিএমএ’র সাধারণ সম্পাদক ডাঃ মেহেদী নেওয়াজ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডাঃ বঙ্গ কমল বসু, স্বাচিপের সাংগঠনিক সম্পাদক ডাঃ তারিম, খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক মুন্সী রেজা সেকেন্দার, ডাঃ শকত লস্কর, স্বাস্থ্য পরিচালক ডাঃ রাশেদা সুলতানা, খুলনা সিভিল সার্জন সুজাত আহমেদ, বিএমএ’র সাংগঠনিক সম্পাদক ডাঃ মামুন রশিদ। সঞ্চালনা করেন বিএমএ’র প্রচার সম্পাদক ডাঃ সুমন রায়। বিভিন্ন সরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের চিকিৎসক এই সমাবেশে অংশ নেন।

ঊল্লেখ্য, গত ১৫ জুন সোমবার এক প্রসূতি মারা যাওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে তার স্বজনরা খুলনা রাইসা ক্লিনিকের মালিক ডাঃ মোঃ আব্দুর রকিব খানের ওপর হামলা চালায়। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। ১৬ জুন মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালে মারা যান।