নইল্লা বিলের জের ধরে দোকান ভাংচুর ও টাকা লুটপাট, আহত ৪

0
6

গোপালপুর প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার ঝাওয়াইল ইউনিয়নের ভাদাই গ্রামে ঐতিহ্যবাহী নইল্লা বিল দখলের অভিযোগ করায় সোনামুই বাজারে আতিক মেডিকেল হলে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট করেছে দুর্বৃত্তরা।

এলাকাবাসীর কাছ থেকে জানা যায় ক্ষতিগ্রস্থ এই ব্যবসায়ী মো. ওমর আলীর ছেলে আতিক । এই হামলায় প্রায় এক লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে এবং ব্যবসায়ী সমিতির আনুমানিক আড়াই লক্ষ টাকা লুটপাট করে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। এ বিষয়ে গোপালপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।

গত রবিবার (১৪ জুন ) সকালে এ হামলার ঘটনাটি ঘটে। খবর পেয়ে গোপালপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

স্থানীয়রা বলেন নইল্লা বিলের অভিযোগ নিউজ করার পর অভিযুক্তরা কিছু সন্ত্রাসী লোকজন নিয়ে দোকানের উপর হামলা করে এতে চারজন আহত হন। আহত অবস্থায় দুজনকে গোপালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রাখা হয়।

ক্ষতিগ্রস্ত ডাক্তার আতিক সাংবাদিকদের বলেন এই সংঘর্ষের হুকুমদাতা কামরুল ও সুলতান দাঁড়িয়ে থেকে দোকান ভাঙচুর করে এবং দোকানের ক্যাশ বক্স থেকে নগদ দের লক্ষ টাকা লুটে নিয়ে যায় ও এক লক্ষ টাকার ঔষধ নষ্ট করে। এবং তাকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে যায়।

সন্ত্রাসীরা একই এলাকার নোয়িল্লা বিল দখল করতে এসে পাশের তার চাচার ঔষধের দোকানে ভাংচুর করে মালামাল লুট করে।

এই বিষয়ে গোপারপুর থানা ওসি মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন ঘটনার পর ১৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করছেন আতিক ডাক্তার। আমারা তদন্ত করে আইনত ব্যবস্থা গ্রহন করবো।