দেশজুড়ে

গোবিন্দগঞ্জের সাতটি এলাকায় লকডাউন ঘোষণা

  • 9
    Shares

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধাঃ করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ ব্যাপক ভাবে ছড়িয়ে পড়ায় গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটি’র সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক উপজেলার অত্যাধিক করোনা শনাক্ত এলাকা লকডাউন এর সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

জানা গেছে, ১৫ জুন সোমবার থেকে আক্রান্ত এলাকাগুলো লকডাউন কার্যকর হবে।লকডাউন এলাকাগুলো রেড জোন ও ইউয়োলো জোন এ দুটি জোন ভিত্তিক বিভক্ত করা হয়েছে। রেডজোন এলাকা পুরোপুরি লকডাউন এবং ইউয়োলো জোন এলাকা আংশিক লকডাউন কার্যকর করা হবে।

জানা গেছে,পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ড,৭ নং ওয়ার্ডের ঘোষপাড়া ও প্রগতি পাড়া এবং ৮ নং ওয়ার্ডের পান্থা পাড়া ও গোরস্থান পাড়া এবং ৫ নং ওয়ার্ড এর হীড়কপাড়া,প্রধানপাড়া এসকল এলাকা রেড জোনের মধ্যে রয়েছে। এদিকে সাপমারা ইউনিয়নের কামারপাড়া,চকরহিমারপুর,মহিমাগঞ্জ ইউনিয়নের জগদীশপুর তালুককানুপুর ইউনিয়নের তাজপুর গ্রাম ইউয়োলো জোনে রয়েছে।

এসকল এলাকা চিহ্নিতকরণ ও করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে ১৪জুন রবিবার সকাল ১১টায় গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা চত্বরে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসভায়-প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রামকৃষ্ণ বর্মণ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ প্রধান,পৌর মেয়র আতাউর রহমান সরকার, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম তাজু, থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম মেহেদী হাসান, উপজেলা পরিবার ও পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.মজিদুল ইসলামসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যানবৃন্দসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় সিদ্ধান্ত মোতাবেক পৌর শহরের রেডজোন এলাকার সকল বিপনীবিতান, শপিংমল, বাজার ও অন্যান্য দোকান বন্ধ থাকবে। তবে ঔষধ, কাঁচামাল ও মুদি দোকান গৃহিত লক ডাউনের আওতামুক্ত থাকবে।

উপজেলার প্রশাসন জানিয়েছেন এবারের লকডাউন কঠোরভাবে কার্যকর হবে। এ লকডাউন আদেশ আগামী ১৪ দিন পর্যন্ত কার্যকর থাকবে।এরপর করোনা সংক্রমণের পরিস্থিতি অনুযায়ী পরবর্তী ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।


  • 9
    Shares

এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button