দেশজুড়ে

সিরাজদিখানে করোনায় আক্রান্ত প্রবাসীসহ ৩ জনের মৃত্যু

  • 16
    Shares

সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি: মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার শেখরনগর ইউনিয়নে পাউসার গ্রামে শুক্রবার সন্ধ্যায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আনোয়ার আলী (৯০) নামে এক ব্যক্তি। তিনি শেখরনগর ইউনিয়নের পাউসার গ্রামের মৃত ইশাদ আলীর ছেলে। তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকার মুগদা জেনারেল হাসপাতালে মারা যান। ঐ রাতেই ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় উপজেলার বয়রাগাদী ই্উনিয়নের রায়ের বাগ গ্রামের আবুল বেপারী (৬৮) নামে আরো এক ব্যাক্তির মৃত্যু হয়। তিনিও করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। সে রায়ের বাগ গ্রামের মৃত কালু বেপারীর ছেলে।

এছাড়া উপজেলার ইছাপুরা ইউনিয়নের পূর্ব শিয়ালদী গ্রামের আয়নাল হক মৃধার ছেলে সৌদি প্রবাসী মো. বাবুল মৃধা (৩৫) নামে একজন করোনায় আক্রান্ত হয়ে সৌদিআরবে মারা গেছেন। তার স্বজনরা জানিয়েছেন শুক্রবার বাংলাদেশ সময় রাত ৮ টার দিকে সৌদীআরবে চিকিৎসাধিন অবস্থায় হাসপাতালে তার মৃত্যু ঘটে। তার লাশ সেখানেই দাফন করা হবে বলে স্বজনরা জানায়। তারা আরো জানান গত মার্চ মাসে সে করোনা দুর্যোগে স্থানীয় দরীদ্রদের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন। এরপর তার ব্যবসার কাজে সৌদিআরবে আবার চলে যান। ওখানে যাওয়ার কিছুদিন পর সে করোনায় আক্রান্ত হন।

আবুল বেপারীর লাশ শনিবার দুপুরে জানাযা শেষে গোড়াপীপাড়া কবরস্থানে দাফন করা হয়। তার জানাযায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হাজী মহিউদ্দিন আহমেদ, উপজেলা মসজিদের খতিব মাওলানা সোয়াইব হোসাইন, থানা পুলিশের ৩ সদস্যসহ স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় জানাযা ও দাফনে সহায়তা করেন উপজেলা ইসলামী ফাউন্শেনের ৪ সদস্য।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. বদিউজ্জামান জানান, গত ৬ জুন নমুনা সংগ্রহ করার পর ৮ জুন তাদের দুজনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এরপর ৯ জুন আনোয়ার আলীকে ঢাকার মুগদা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অপর দিকে আবুল বেপারী ঢাকায় একটি হাসপাতালে ভর্তি হন। এনিয়ে সিরাজদিখানে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৫ জন। শনিবার নতুন কওে আরো ৯ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। এ নিয়ে সিরাজদিখানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২২৮ জন। আর সুস্থ্য হয়েছেন ৬৯ জন।


  • 16
    Shares

এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button